এজন্যই কি অধিনায়ক হিসেবে ভালো করতে পারছেন না মুমিনুল!

প্রকাশিত: ৪:১১ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২০

ছোটখাটো গড়ন, শান্ত স্বভাবের মুমিনুল হক। তবে ব্যাট হাতে টেস্ট দলের সবচেয়ে বড় আস্থার নাম। এখন তো পেয়ে গেছেন নেতৃত্বের গুরুদায়িত্বও। তবে ব্যাট হাতে ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই প্রতিপক্ষের যতটা দুশ্চিন্তার কারণ হয়েছেন, অধিনায়ক হিসেবে ততটা ভালো করতে পারছেন না মুমিনুল।

যদিও তার প্রথম দুই অ্যাসাইনম্যান্টই ছিল কঠিন। ভারত সফরে দুই টেস্টের সিরিজে ন্যুনতম প্রতিরোধ গড়তে না পেরে হোয়াইটওয়াশ হয় বাংলাদেশ দল। এরপর পাকিস্তানে গিয়ে এক টেস্ট খেলে হেরেছে ইনিংস ব্যবধানে।

এমন ব্যর্থতার পরও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ঘরের মাঠে একমাত্র টেস্টে মুমিনুলকেই অধিনায়ক রেখেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। তবে এই টেস্টের সাফল্য-ব্যর্থতা মুমিনুলের অধিনায়কত্ব ক্যারিয়ারের ভবিষ্যত গড়ে দিতে পারে।

যদিও মুমিনুল দীর্ঘমেয়াদে দলকে নেতৃত্ব দেয়ার ইচ্ছেই পোষণ করেছেন। দীর্ঘমেয়াদে দায়িত্ব পেলে পরিকল্পনা করে দলকে এগিয়ে নেয়া সহজ হয় বলেই মনে করেন বাংলাদেশের এই লিটলম্যান।

মুমিনুল বলেন, ‘প্রথম সিরিজে আমি নার্ভাস ছিলাম। তবে এখন এটা (নেতৃত্ব) উপভোগ করছি। আমি প্রথমে এটা বুঝতে পারছিলাম না। তবে এখন ধীরে ধীরে বুঝতে পারছি কিভাবে কি করতে হবে।’

বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান যোগ করেন, ‘আমি শিখছি কিভাবে উন্নতি করতে হবে এবং কাজে লাগাতে হবে। এটা একটা ধারাবাহিক প্রক্রিয়া। আমার মনে হয় আপনি প্রতিদিনই কিছু না কিছু শিখবেন। আমি সময় নিচ্ছি এবং কি ভুল করছি কিংবা কিভাবে ভিন্ন ভিন্ন পরিস্থিতি সামাল দিতে হয় সেটা বিচার-বিশ্লেষণ করছি।’

কতদিনের জন্য দায়িত্বটা পেয়েছেন মুমিনুল সেটাই জানেন না। এটা কি একটা প্রতিবন্ধকতা? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নে মুমিনুলের জবাব, ‘হ্যাঁ, আপনি ঠিক বলেছেন, আমি পরিষ্কারভাবে জানি না এটা। দীর্ঘমেয়াদী নেতৃত্বের কথা যদি বলেন, শুধু নেতৃত্ব নয়; যে কোনো কাজেই যদি দীর্ঘমেয়াদে সময় পান, তবে সহজ হয়ে যায়। আপনি তবে পরিকল্পনা করতে পারেন- খেলোয়াড়রা কি চায়, কিভাবে তাদের ব্যবহার করতে হবে, টিম ম্যানেজম্যান্টসহ সবকিছুই বোঝা সহজ হয়ে যায়। যদিও আমি এটা নিয়ে আমার মাথাব্যথা নেই। দীর্ঘমেয়াদে নাকি সিরিজ বাই সিরিজ থাকব, সেটি নিয়ে ভাবছি না।’

কোচ রাসেল ডোমিঙ্গোর সঙ্গে বোঝাপড়াটা দারুণ বলেই জানালেন মুুমিনুল। কিন্তু দল যদি ভালো না করে, তবে অধিনায়ক ভালো নাকি খারাপ, সেটা বোঝার উপায় থাকে না-বিশ্লেষণ এই ব্যাটসম্যানের।

মুমিনুলের ভাষায়, ‘যদি দল না জিতে অথবা ভালো না করে। আপনি যদি কাঙ্খিত ফল না পান, তবে অধিনায়কের কোয়ালিটি কেমন বোঝাটা কঠিন হয়ে যায়।’

Share Button