রাজাকারের তালিকার ভুল ইচ্ছাকৃত কি না, অনুসন্ধান করা হবে : তথ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত: ৫:১০ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৮, ২০১৯

মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রণালয় কর্তৃক প্রকাশিত রাজাকারের তালিকা আজ বুধবার বাতিল করা হয়েছে। সেই তালিকা নিয়ে কথা বলেছেন তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ। তিনি বলেছেন, ‘কিছু ভুল রয়েছে, যা মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী নিজেও স্বীকার করেছেন এবং ভুলগুলো অবশ্যই শুধরে নেবার সুযোগ আছে।’

তিনি বলেন, ‘এ ভুলগুলো কেন হলো, কীভাবে হলো, ইচ্ছাকৃতভাবে কেউ করেছে কি না, তা অনুসন্ধান করে বের করা হবে এবং দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’  আজ বুধবার সকালে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বাংলাদেশ বেতার সদর দপ্তরে বাংলাদেশ বেতারের ৮০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন র‌্যালি উদ্বোধনের পর এসব কথা বলেন তথ্যমন্ত্রী।

‘স্বাধীনতার ৪৮ বছর পর রাজাকারের তালিকা কেন’-বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এ মন্তব্যের বিষয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন ড. হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, ‘রাজাকারের তালিকা কেন-এ প্রশ্ন করে বিএনপি রাজাকারদের পক্ষে নিজেদের মুখোশ নিজেরাই উন্মোচন করেছে।’

ড. হাছান বলেন, ‘মির্জা ফখরুল সাহেব তার এ বক্তব্যের মধ্যে দিয়ে রাজাকারদেরই পক্ষ নিয়েছেন। আমরা এতদিন ধরে বলে আসছি, বিএনপি স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তির প্রধান পৃষ্ঠপোষক এবং তাদের দলের চেয়ারপারসন পাকিস্তানিদের দোসর ছিলেন। তাদের দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানও মুক্তিযোদ্ধার ছদ্মাবরণে পাকিস্তানের গুপ্তচর হিসেবে কাজ করেছেন। আজ রাজাকারের তালিকা প্রকাশের পর মির্জা ফখরুল সাহেব কেন তালিকা প্রকাশ হলো- এ প্রশ্ন রেখে রাজাকাররে পক্ষ অবলম্বন করে নিজেদের মুখোশই উন্মোচন করেছেন।’

‘রাজাকারের তালিকা প্রকাশের পর দেখা যাচ্ছে, রাজাকারদের যারা আশ্রয়-প্রশ্রয় দিয়েছে, তারা বিএনপি ও তাদের সহযোগী এবং সেজন্যই এ তালিকা প্রকাশে তাদের এত গাত্রদাহ’, বলেন আওয়ামী লীগ প্রচার সম্পাদক।

Share Button