আজকের বার্তা | logo

৩রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ১৭ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং

বিনামূল্যে খাবার দিচ্ছে মেসির রেস্তোরাঁ

বিনামূল্যে খাবার দিচ্ছে মেসির রেস্তোরাঁ

কোপা আমেরিকায় ফুটবলের শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ে নেমে দেশবাসীর আশা পূর্ণ করতে পারেননি লিওনেল মেসি। টুর্নামেন্টে তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে চিলির বিপক্ষে লাল কার্ড দেখে মাঠ ত্যাগ করতে হয় তাকে। এছাড়াও ব্রাজিলের কাছে হেরে সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নিয়েছিল আর্জেন্টিনা। কাপ জিতেছে ব্রাজিল। তারপর থেকে একটানা সমালোচনা হজম করতে হচ্ছে মেসিকে।

যদিও এত সমালোচনার মাঝেও মেসির ভাল দিক তাকে হাজার তারকার মাঝেও উজ্জ্বল করে তুলছে। নিজের এমন দুর্দিনে দেশের মানুষের কথা ভুলেননি মেসি। দেশের জন্য কিছু একটা করতে সবসময়ই উদগ্রীব হয়ে থাকেন এই বিশ্বসেরা ফুটবল তারকা।

ফুটবল দিয়ে না হোক এবার অন্যভাবে দেশের মানুষের মুখে হাসি ফুটিয়েছেন মেসি।আর্জেন্টিনায় বেশ কিছুদিন ধরে চলছে শৈত্যপ্রবাহ। সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে দারিদ্র্য। দক্ষিণ আমেরিকার এই দেশে অতিদরিদ্র মানুষের সংখ্যা ঠেকেছে ২ লাখে। প্রচুর মানুষ দারিদ্যের জন্য খোলা আকাশের নিচে আশ্রয় নিতে বাধ্য হয়েছে। এবার সেই হতদরিদ্র মানুষদের পাশে দাঁড়ালেন মেসি।মেসির জন্মস্থান রোজারিওতে একটি রেস্তোরাঁ চালায় তার পরিবার। গত শুক্রবার থেকে সেখানে ঘরছাড়া, দুস্থ মানুষদের বিনামূল্যে খাবার বিতরণ করা হচ্ছে। মেসির সেই রেস্তোরাঁর নাম ভিআইপি।

জনপ্রিয় স্প্যানিশ পত্রিকা মার্কা-র খবর অনুযায়ী, ১৫ দিন এভাবেই ঘরছাড়া মানুষদের মুখে খাবার তুলে দেবে মেসির রেস্তোরাঁ। ভিআইপি-র ম্যানেজার অ্যারিয়েল আলমাদার বলেছেন, ”খাবারের পাশাপাশি আমরা কফি, সফট ড্রিংকস ও কখনও কখনও হালকা ওয়াইনেরও ব্যবস্থা করেছি। টানা ১৫ দিন আমরা এই কর্মসূচি চালাব। সন্ধ্যা ৭টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত ক্ষুধার্ত মানুষদের জন্য রেস্টুরেন্টের দরজা খোলা থাকবে।”

খিদে ও শৈত্যপ্রবাহের জেরে ইতোমধ্যে আর্জেন্টিনায় পাঁচজনের মৃত্যুর খবর রয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে দেশের মানুষের জন্য মেসির এই উদ্যোগ সত্যিই প্রশংসনীয়। ফুটবলার মেসির থেকে মানুষ মেসির গুণগান করছেন আর্জেন্টিনার মানুষ।

Share Button


দৈনিক আজকের বার্তা

প্রকাশক: মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক: কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল

যোগাযোগ

ঠিকানা: ৫২৫ ফজলুল হক এভিনিউ (কাকলীর মোড়), বরিশাল।
বাণিজ্যিক বিভাগ: 043163954
মোবাইল: 01916582339

Website Design & Developed By

আজকের বার্তার প্রকাশিত-প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।