আজকের বার্তা | logo

২২শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ৬ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং

ঝালকাঠির ‘গাঁজাখোর’ সন্দেহে যুবককে গণপিটুনি

ঝালকাঠির ‘গাঁজাখোর’ সন্দেহে যুবককে গণপিটুনি

ঝালকাঠির নলছিটিতে গাঁজা সেবনের অভিযোগে এক যুবককে গণপিটুনি দিয়ে ১৫ পুড়িয়া গাঁজাসহ পুলিশে সোপর্দ করেছে এক ইউপি চেয়ারম্যান ও তার লোকজন। আহত যুবকের অভিযোগ অমানবিক নির্যাতন শেষে তার হাতে গাঁজা ধরিয়ে দেয় চেয়ারম্যানের লোকজন। এসময় তারা মোবাইলফোনে গাঁজাসহ তার ছবি ও ভিডিও করে রাখে। উপজেলার নাচনমহল বাজার সংলগ্ন ব্রীজের ঢালে বুধবার দুপুর দেড়টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ আহত যুবককে উদ্ধার করে ওইদিন বিকেলে নলছিটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এ ঘটনায় রাতে ওই যুবকের পিতা বাদি হয়ে নলছিটি থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বুধবার দুপুরে উপজেলার নাচনমহল গ্রামের মো. কাদের খলিফার ছেলে মোটর মেকানিক মো. রিয়াজ খলিফাকে (৩০) তার দোকান থেকে টেনেহিঁচড়ে রানাপাশা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সামনে নিয়ে যান স্থানীয় কয়েকজন সন্ত্রাসী। ওই যুবকের কাছে গাঁজা পাওয়া গেছে অভিযোগ তুলে তাকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে আহত করে তারা। এরপর স্থানীয় মোল্লারহাট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. কবির হোসেন ঘটনাস্থলে এসে ফের ওই যুবককে মারধর করেন। খবর পেয়ে পুলিশ আহত যুবককে উদ্ধার করে নলছিটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

আহত রিয়াজ খলিফা জানান, ‘পূর্বশত্রুতার জের ধরে শাহাদাত মোল্লা, সুমন, মিজানসহ আরো কয়েকজন যুবক আমার দোকানে এসে ক্যাশ থেকে উঠে দাড়াতে বলে। এরপর আমার দোকানে গাঁজা পাওয়া গেছে অভিযোগ তুলে তারা আমাকে ধরে পার্শ্ববর্তী স্কুলবাড়ি (রানাপাশা মাধ্যমিক বিদ্যালয়) নিয়ে যায়। সেখানে আমাকে হাতুড়ি দিয়ে পেটানো হয়। এরপর তারা ইউপি চেয়ারম্যান কবির হোসেনকে খবর দিলে তিনি ঘটনাস্থলে এসে ফের আমাকে মারধর শুরু করেন। একপর্যায় তিনি আমাকে এলাকা ছেড়ে অন্যত্র চলে যাওয়ার প্রস্তাব দেন। আমি অমানবিক নির্যাতন সহ্য না করতে পেরে তার প্রস্তাবে রাজি হলে চেয়ারম্যানের সাঙ্গপাঙ্গরা আমার হাতে ১৫ পুড়িয়া গাঁজা দিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দেন। এরআগে মোবাইলফোনে তারা আমার ছবি ও ভিডিও করে রাখে।’

অভিযোগের ব্যাপারে মোল্লারহাট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. কবির হোসেন বলেন, ‘রিয়াজ খলিফাকে মারধরের ঘটনায় আমি কোনভাবেই জড়িত নই। অহেতুক আমাকে জড়ানোর চেষ্টা করা হচ্ছে।তিনি আরো বলেন, ‘রিয়াজকে গাঁজাসহ আটকের পর এলাকাবাসীরা আমাকে জানায়। বিষয়টি পুলিশকে জানানো হলে তারা ওই যুবককে থানায় নিয়ে যায়।নলছিটি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাখাওয়াত হোসেন জানান, মোটর মেকানিক রিয়াজ খলিফাকে মারধরের ঘটনায় তার পিতা মো. কাদের খলিফা বাদি হয়ে মিজান, সুমন, শাহাদাত ও দোলোয়ার নামে চারজনকে আসামী করে নলছিটি থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। আসামীদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

তিনি আরো জানান, আহত ওই যুবক নলছিটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।উল্লেখ্য, কিছুদিন আগে প্রকাশ্য দিবালোকে উপজেলার নাচনমহল ব্রীজের দক্ষিণ ঢালে সাইদুল ইসলাম তালুকদার নামে এক যুবককে কুপিয়ে হাত-পা কেটে হত্যা ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যান কবির হোসেন পুলিশের হাতে গ্রেফতার হন। ওই মামলার প্রধান আসামী হিসেবে দীর্ঘদিন জেলহাজতে ছিলেন তিনি। এরআগে ঋণ প্রদানের সুপারিশ না শোনায় কৃষি ব্যাংকের তালতলা শাখা ব্যবস্থাপক মো. মোস্তাইনুর রহমানকে মারধর করেন ওই ইউপি চেয়ারম্যান ও তার লোকজন। এ ঘটনায় দায়ের হওয়ায় মামলায় তাকে আসামী করা হলে বেশ কিছুদিন জেলহাজতে ছিলেন তিনি।

Share Button


দৈনিক আজকের বার্তা

প্রকাশক: মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক: কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল

যোগাযোগ

ঠিকানা: ৫২৫ ফজলুল হক এভিনিউ (কাকলীর মোড়), বরিশাল।
বাণিজ্যিক বিভাগ: 043163954
মোবাইল: 01916582339

Website Design & Developed By

আজকের বার্তার প্রকাশিত-প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।