আজকের বার্তা | logo

২৯শে আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ১৪ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং

বাউফলে শ্রেণি কক্ষে বাণিজ্যিক পণ্যের প্রচার

বাউফলে শ্রেণি কক্ষে বাণিজ্যিক পণ্যের প্রচার

আরেফিন সহিদ, বাউফল প্রতিনিধি ॥
বাউফলের বিভিন্ন প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ক্লাস চলাকালীন শ্রেণি কক্ষে বাণিজ্যিক পণ্য টুথপেস্ট, হ্যান্ডওয়াশ, গাইড বই ও মোবাইল সিমের প্রচার চলছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও শিক্ষকদের আকৃষ্ট করতে বিভিন্ন পণ্য ফ্রি সরবরাহ করা হচ্ছে। ক্লাস চলাকালীন বিভিন্ন কোম্পানির পণ্যের প্রচার করায় পাঠদান ব্যাহত হচ্ছে। এতে অভিভাবকদের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, কিছু দিন থেকে বাউফলের বিভিন্ন প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কয়েকটি কোম্পানির টুথপেস্ট, হ্যান্ডওয়াশ, গাইড বই ও মোবাইল সিমসহ নানা পণ্যের প্রচার চলছে। একাধিক প্রতিষ্ঠিত কোম্পানির প্রতিনিধিরা কৌশলে শিক্ষার্থীদেরকে তাদের পণ্য ব্যবহারের ক্ষেত্রে উৎসাহিত করছে। সেক্ষেত্রে মাল্টিমিডিয়ার মাধ্যমেও পণ্যের বিজ্ঞাপন প্রচার করা হচ্ছে। একাধিক বিদ্যালয়ের অভিভাবক বলেন, সকাল ৯ টা থেকে দুপুর ১ টা পর্যন্ত কোম্পানির বিভিন্ন পণ্যের বিজ্ঞাপন প্রচার করায় পাঠদান ব্যাহত হচ্ছে। কেশবপুর ইউনিয়নের পূর্ব ভরিপাশা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাজমা বেগম নামের এক অভিভাবক বলেন, গতকাল মঙ্গলবার একটি কোম্পানির প্রতিনিধিরা এসে শ্রেণি কক্ষে প্রবেশ করে টুথপেস্ট এর প্রচার করেছে। এ সময় ওই শ্রেণির দায়িত্বে থাকা শিক্ষক অফিস কক্ষে বসে গল্প করেছেন। এক পর্যায়ে ওই বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদেরকে ফ্রি টুথপেস্ট দেয়া হয়েছে। সকাল সাড়ে ৯ টায় পণ্যের বিজ্ঞাপন প্রচারের জন্য বিদ্যালয়ে যাওয়ার পর দুপুর পর্যন্ত চলে প্রচার-প্রচারণা। যাওয়ার সময় কোম্পানির প্রতিনিধিরা পরবর্তীতে হ্যান্ডওয়াশ ফ্রি দেয়া হবে বলেও শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের লোভ দেখিয়েছেন। এতে পাঠদান ব্যাহত হয়েছে। নুরাইনপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক শিক্ষক বলেন, প্রায় প্রতিদিনই বাউফলের কোনো না কোনো বিদ্যালয়ে কোম্পানির প্রতিনিধিরা নানা পণ্যের প্রচার করছেন। তবে সচেতন শিক্ষকরা বিষয়টির জন্য কৈফিয়ত চাইলে কোম্পানির প্রতিনিধিরা তাদেরকে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের অনুমতি আছে বলে নিবৃত করেন। ধুলিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক সৈয়দ আরিফুর রহমান বলেন, কোম্পানির প্রতিনিধিরা আমাদেরকে জানিয়েছেন সরকারি নির্দেশে এসব পণ্য শিক্ষার্থীদেরকে ফ্রি দেয়া হচ্ছে। রফিকুল ইসলাম নামের একটি কোম্পানির প্রতিনিধি জানান, আমরা প্রতিটি বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদেরকে হাত ধোয়া ও দাঁত মাজার উপকারিতা সম্পর্কে সচেতন করি। এ কাজটি বাস্তবায়নের জন্য আমাদের শিক্ষা বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের অনুমোদন রয়েছে। বিদ্যালয় চলাকালীন শ্রেণি কক্ষে প্রবেশ করার অনুমতি রয়েছে কিনা এমন প্রশ্নে চুপ থাকেন ওই কোম্পানির প্রতিনিধি। তবে আয়লা, মাধবপুর, বগা, পূর্ব কালাইয়া ও আলী আকবর আদর্শ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একাধিক অভিভাবক বলেন, বিদ্যালয় চলাকালীন শ্রেণি কক্ষে বিভিন্ন কোম্পানির পণ্যের প্রচার করায় শিক্ষার্থীদের উপকারের চেয়ে অপকারিতা বেশি হচ্ছে। কোম্পানির প্রতিনিধিরা হাত ধোয়া বা দাঁত পরিষ্কারের বিষয়ে সচেতন করার দাবি করলেও মূলত শিক্ষকরাই এ বিষয়গুলো শ্রেণি কক্ষে শিক্ষার্থীদের শিখিয়ে দেন। কোম্পানির প্রতিনিধিরা মূলত তাদের পণ্যের প্রচারের জন্য বিভিন্ন বিদ্যালয় টার্গেট করেছেন। আর এতে পাঠদান ব্যাহত হওয়ায় শিক্ষার্থীরা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। কালিশুরী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অভিভাবক রুহুল আমিন বলেন, এক সময় গ্রামের হাট বাজারে ‘মজমা’ মিলিয়ে বিভিন্ন কোম্পানির প্রতিনিধিরা তাদের পণ্যের প্রচার করতেন। আর এখন বিভিন্ন বিদ্যালয়ে ‘মজমা’ মিলিয়ে নানা পণ্যের প্রচার চলছে। আর এ ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের টার্গেট করার বিষয়টি খুবই দুঃখজনক। নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক অভিভাবক বলেন, শিক্ষকদের উপহার- উপঢৌকন দিয়ে ক্লাস চলাকালীন কোম্পানির বিভিন্ন পণ্যের প্রচার চলছে। ওই সময় শিক্ষকরা ক্লাস ফাঁকি দিয়ে অফিসে বসে গল্প করে সময় কাটাচ্ছেন। এ প্রসঙ্গে বাউফল উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা রিয়াজুল হক বলেন, কয়েকটি কোম্পানি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়ে বিভিন্ন বিদ্যালয়ে সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করছে। তবে কোনোভাবেই বিদ্যালয় চলাকালীন এসব কার্যক্রম পরিচালনা করা যাবে না। ছুটির আগে বা পরে সচেতনতামূলক কার্যক্রম করা যাবে।

Share Button


দৈনিক আজকের বার্তা

প্রকাশক: মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক: কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল

যোগাযোগ

ঠিকানা: ৫২৫ ফজলুল হক এভিনিউ (কাকলীর মোড়), বরিশাল।
বাণিজ্যিক বিভাগ: 043163954
মোবাইল: 01916582339

Website Design & Developed By

আজকের বার্তার প্রকাশিত-প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।