ব্রিটিশদের ৩০ দিন বিদেশ ভ্রমণ না করার নির্দেশ

প্রকাশিত: ২:৩৭ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৭, ২০২০

নিজ দেশের নাগরিকদের বিশ্বের যেকোনো স্থানে অপ্রয়োজনীয় ভ্রমণ না করতে ভ্রমণ নির্দেশিকা ঘোষণা করেছে ব্রিটিশ সরকার। বৈশ্বিক মহামারি করোনার বিস্তার ঠেকানোর লড়াইয়ের অংশ হিসেবে আজ দেশটির সরকারের পক্ষ থেকে এমন সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়। খবর ডেইলি মেইলের।

ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডমিনিক রাব বলেন, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জারি করা নতুন ভ্রমণ নির্দেশনার আওতায় নাগরিকদের বৈশ্বিক ভ্রমণ এড়িয়ে চলা উচিত। তিনি দেশটির পার্লামেন্টে বলেছেন, নতুন এ নির্দেশনা আগামী ৩০ দিন কার্যকর থাকবে। তবে প্রয়োজনে যেকোনো সময় এটা পুনর্মূল্যায়ন করা হতে পারে।

মঙ্গলবার দেশটির পার্লামেন্টকে তিনি বলেন, ‘বৈশ্বিক পরিস্থিতি দ্রুত পাল্টে যাওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে আমি পররাষ্ট্র ও কমনওয়েলথ মন্ত্রণালয়ের (এফসিও) নতুন এ ভ্রমণ নির্দেশিকা ঘোষণা করছি। বিশ্বের অনেক দেশে ব্রিটিশ নাগরিকদের এখন আন্তর্জাতিক সীমান্ত বিধিনিষেধের মুখোমুখি হতে হবে।

করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে সীমান্ত ৩০ দিনের জন্য সম্পূর্ণ বন্ধ করার পরিকল্পনা করছে ইউরোপিয়ান কমিশন— ইউরোপের অনেক দেশ বিধিনিষেধ আরোপসহ সীমান্ত বন্ধ করার প্রেক্ষিতে ইউরোপিয়ান কমিশনের প্রেসিডেন্টের এমন ঘোষণার পর এ নির্দেশিকা জারি করলো যুক্তরাজ্য।

নভেল করোনাভাইরাস সংক্রমিত কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত হয়ে ৫৫ জনের মৃত্যু হয়েছে যুক্তরাজ্যে। দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা এখন ১ হাজার ৫৪৩ জন। তবে আক্রান্তদের মধ্যে ১ হাজার ৪৩৬ জন চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়েছেন।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আজ মঙ্গলবার পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী ৭ হাজার ৪৯৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে আক্রান্তের সংখ্যা এখন ১ লাখ ৮৮ হাজার ১৪৬। অপরদিকে হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৮০ হাজার ৮৪৮ জন।

Share Button