আজকের বার্তা | logo

৫ই ভাদ্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ১৯শে আগস্ট, ২০১৮ ইং

অনিয়ম তদন্তে নির্বাচন কমিশনের টিম বরিশালে

প্রকাশিত : আগস্ট ১২, ২০১৮, ০১:৩৫

অনিয়ম তদন্তে নির্বাচন কমিশনের টিম বরিশালে

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বরিশাল সিটি নির্বাচনে ফলাফল স্থগিত করা ১৫ ভোট কেন্দ্রসহ অনিয়মের অভিযোগের উপরে ৩০টি কেন্দ্র তদন্তে এসেছে নির্বাচন কমিশনের গঠিত একটি তদন্ত টিম। গতকাল শনিবার সকাল ১০টা থেকে টিমের সদস্যরা আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়ের সভাকক্ষে তদন্ত কার্যক্রম শুরু করেছেন। তারা জানিয়েছেন, নির্বাচন কমিশনের পর্যবেক্ষণ টিম ও রিটার্নিং অফিসারের প্রতিবেদন এবং মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীদের বিভিন্ন অভিযোগের বিষয়গুলো তদন্ত করা হবে। তদন্ত শেষে নির্ধারিত ১৫ কর্মদিবসের মধ্যে কমিশনারের কাছে প্রতিবেদন পেশ করা হবে। আগামী মঙ্গলবার পর্যন্ত এ তদন্ত চলবে বলে জানা গেছে। সূত্রমতে, তদন্তকালে ওই ৩০ কেন্দ্রর দায়িত্বরত প্রিজাইডিং অফিসার, সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার, পোলিং অফিসার, প্রার্থীদের পোলিং এজেন্ট, আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় দায়িত্বরত পুলিশের কেন্দ্র ইনচার্জ, আনসার সদস্য, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, স্ট্রাইকিং ফোর্সের দায়িত্বরত কর্মকর্তাসহ নির্বাচন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা ও প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের কাছ থেকে লিখিত ও মৌখিক সাক্ষ্য গ্রহণ করবে তদন্ত টিম। বরিশালে এসেছেন তদন্ত টিমের প্রধান কমিশন সচিবলায়ের যুগ্ম সচিব খোন্দকর মিজানুর রহমান, টিমের সদস্য নির্বাচন কমিশন সচিবলায়ের উপসচিব মো. ফরাদ হোসেন, উপ-পরিচালক সহিদ আবদুস ছালাম ও সিনিয়র সহকারী সচিব মো. শাহ্ আলম। আঞ্চলিক নির্বাচন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ৩০ জুলাই বরিশাল সিটি করপোরেশনের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ওই দিন কমিশন থেকে গঠিত ১২ সদস্যের পর্যবেক্ষণ টিম পুরো নির্বাচন প্রক্রিয়া পর্যবেক্ষণ করে। তারা ওই ১৫টি কেন্দ্রের ফলাফল স্থগিত করার সুপারিশ করলে ফলাফল স্থগিত ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। পাশাপশি ১নম্বর ওয়ার্ডে সৈয়দুর রহমান কেন্দ্রে গোলযোগ হলে রিটার্নিং অফিসার ভোট গ্রহণ স্থগিত করেন। এছাড়া অপর ১৪টি কেন্দ্রের বিরুদ্ধে কাউন্সিলররা নির্বাচন কমিশন ও রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয়ে অভিযোগ দেয়ায় কেন্দ্রগুলোর ব্যাপারে তদন্ত করা হয়েছে। গতকাল শনিবার বিকেল ৩টা পর্যন্ত ৫টি কেন্দ্রের তদন্ত কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে। সেগুলো হচ্ছে- সৈয়দ মজিদুনেচ্ছা মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র, বরিশাল পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্র, ফারিয়া কমিউনিটি সেন্টার কেন্দ্র, সরকারি মহিলা কলেজ ও বরিশাল সিটি কলেজ কেন্দ্র। ফারিয়া কমিউনিটি সেন্টার কেন্দ্রে দায়িত্বে থাকা প্রিজাইডিং অফিসার সৈয়দ হাতেম আলী কলেজের প্রভাষক জাহিদুল ইসলাম বলেন, তদন্ত টিম ভোটের দিন কেন্দ্রে কোন প্রার্থী অন্য কোন প্রার্থীর এজেন্টদের বের করে দিয়েছেন কিনা, কিংবা জোর করে কারো কাছ থেকে ব্যালট পেপার ছিনিয়ে নেয়ার ঘটনা ঘটেছে কি না, আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের ভূমিকা কি ছিলো- এ সব বিষয় জানতে চেয়েছে। বরিশাল সিটি কলেজ কেন্দ্রে দায়িত্বে থাকা সহকারী সেটেলমেন্ট অফিসার মো. মনিরুল ইসলাম বলেন, ভোটের দিন ভোটকেন্দ্র ও এর আশপাশ এলাকার আইনশৃঙ্খলার পরিবেশ কেমন ছিলো তা জানতে চেয়েছেন। সিটি নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার ও আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মো: মুজিবুর রহমান বলেন, তদন্তের বিষয়ে রিটার্নিং অফিসার ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদেরও বক্তব্য তারা শুনবেন। তদন্ত কাজে তাদের কাছে যেকোন সহযোগিতা চাইলে তা দেয়া হবে। তদন্ত টিমের প্রধান নির্বাচন কমিশন সচিবলায়ের যুগ্ম সচিব খোন্দকর মিজানুর রহমান বলেন, সিটি নির্বাচনের দিন বিভিন্ন ওয়ার্ডের প্রতিদ্বন্দ্বী কাউন্সিলররা ভোট কেন্দ্রের নানা অনিয়মের বিষয়ে অভিযোগ দাখিল করেন। এর মধ্যে ভোটারদের কাছ থেকে ব্যালট ছিনতাই করে সিল মারা, কেন্দ্র এলাকায় মারধর করা, ভোটারদের ভোটদানে বাধা, প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের প্রাপ্ত ভোটের ব্যবধান, পোলিং এজেন্টদের কেন্দ্রে ভয়ভীতি প্রদর্শন, কেন্দ্র থেকে বের করে দেয়াসহ নানান অভিযোগ দাখিল করা হয়েছে। পাশাপাশি তারা ওই সকল ভোট কেন্দ্রে পুনরায় ভোট গ্রহণের দাবি করেন। তদন্ত টিম অভিযোগের সকল বিষয়গুলোই বিবেচনায় নিয়ে বিশ্লেষণ করবে। পরে প্রতিবেদন আকারে কমিশনে দাখিল করবেন। তিনি জানান, পাশাপাশি নির্বাচনের দিন চার প্রতিদ্বন্দ্বী মেয়র প্রার্থী ভোট বাতিলের যে আবেদন করেছিলেন সে বিষয়েও তদন্ত করা হবে।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।