কাল থেকে শুরু হচ্ছে আদালতে পূর্ণাঙ্গ কার্যক্রম শুরু

প্রকাশিত: ১২:৩৬ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ৪, ২০২০

মো. জিয়াউদ্দিন বাবু ॥

করোনার সময়ে স্বাস্থ্য সুরক্ষার লক্ষ্যে সকল আদালতে শুরু করা হয়েছিল ভার্চুয়াল কার্যক্রম। এর ফলে শুধুমাত্র জামিন শুনানি চলমান থাকলেও বাকি সকল কার্যক্রম প্রায় তিন মাস ধরে বন্ধ রয়েছে। তবে এমন পরিস্থিতি থেকে নিস্তার পাচ্ছেন বিচার প্রার্থীসহ সংশ্লিষ্টরা। কেননা আগামীকাল ৫ আগস্ট থেকে পূর্বের ন্যায় শুরু হতে যাচ্ছে সকল আদালতের কার্যক্রম।

গত ৩০ জুলাই এ বিষয়ে পৃথক বিজ্ঞপ্তি জারি করেছেন সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন। বিজ্ঞপ্তিতে সিদ্ধান্তের বিষয়টি উল্লেখ করে বলা হয়, ‘অধস্তন সব দেওয়ানী ও ফৌজদারী আদালত এবং ট্রাইব্যুনাল সমূহ আগামী ৫ আগস্ট বুধবার থেকে শারীরিক উপস্থিতিতে স্বাভাবিক কার্যক্রম পরিচালিত হবে। এ ক্ষেত্রে শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখার পাশাপাশি ১৪টি নির্দেশনা মানতে বলা হয়েছে সংশ্লিষ্টদের।

বরিশাল জেলা ও দায়রা জজ আদালতের নাজির মো. সালাউদ্দিন এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ‘সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে আগামী ৫ আগস্ট থেকে আদালতের পূর্ণাঙ্গ কার্যক্রম শুরুর নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। সে অনুযায়ী আদালত প্রাঙ্গণে এজলাস কক্ষে স্বাস্থ্য সুরক্ষামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে। পাশাপাশি সবাইকে বাধ্যতামূলকভাবে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে।

প্রসঙ্গত, দেশে করোনাকালে গত ২৬ মার্চের পরে দফায় দফায় সাধারণ ছুটির মেয়াদ বাড়ানো হয়। ৩০ মার্চের পরে সাধারণ ছুটি আর না বাড়লেও আদালত অঙ্গনে নিয়মিত কার্যক্রমের পরিবর্তে নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত ভার্চুয়াল বিচার কাজ অব্যাহত থাকবে জানিয়ে বিজ্ঞপ্তি জারি করেন সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন। এর মধ্যে গত ৯ মে ভার্চুয়াল কোর্ট শুনানীর জন্য আদেশ জারীর পরে ১০ মে থেকে উচ্চ আদালতে এ কার্যক্রম শুরু করেন প্রধান বিচারপতি। ওই দিন থেকেই নি¤œ আদালতে ভার্চুয়াল কোর্টে শুধু মাজিন শুনানী করতে নির্দেশ দেন সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন। এপর থেকে নি¤œ আদালত ভার্চুয়াল আদালতে জামিন শুনানী শুরু হয়। তবে আগামী ৫ আগস্ট থেকে আদালতের স্বাভাবিক কার্যক্রম শুরুর ফলে ভার্চুয়াল কার্যক্রম আপাতৃত বন্ধ থাকবে বলে। এদিকে আদালতের কার্যক্রম শুরু হওয়ার আইনজীবীরা খুশী।

Sharing is caring!