২০ মানসিক ভারসাম্যহীন মানুষের খাবার তুলে দেয়ার মহতি উদ্যোগ বন্ধের শঙ্কায়

প্রকাশিত: 2:45 PM, April 27, 2020

নিজস্ব সংবাদদাতা, কলাপাড়া, পটুয়াখালী, ২৭ এপ্রিল ॥ লকডাউনের শুরু থেকে কুয়াকাটায় ২০ মানসিক ভারসাম্যহীন মানুষের মুখে খাবার তুলে দেয়া সংগঠন ‘জন্মভূমি কুয়াকাটা’ এখন নিজেরাই আর্থিক সঙ্কটে পড়েছেন। যদিও ভারসাম্যহীন এ প্রতিবন্ধী মানুষগুলোর এখন পর্যন্ত মুখে খাবার তুলে দিচ্ছে সংগঠনটি। সংগঠনের ১০ হৃদয়বান যুবক জানান, তারাও লকডাউনে পুরোপুরি কর্মহীন, সম্পুর্ণ বেকার রয়েছেন। কুয়াকাটার বীচে কিংবা রাস্তায় ঘুরে বেড়ানো, ভবঘুরে মানুষগুলো খাবার পেত কুয়াকাটার বিভিন্ন খাবার হোটেল-রেস্তরাসহ ওখানে আসা পর্যটকের সহায়তায়। লকডাউনের ২৭ মার্চ থেকে তা বন্ধ হয়ে গেছে। এরপর থেকে খাবারের যোগান দিয়ে আসছে জন্মভূমি কুয়াকাটা সংগঠন। কিন্তু এরাও বেকার থাকায় সহায়তার হাত সংকুচিত হয়ে আসছে। অসহায় ওই মানুষগুলোর খাবার সহায়তার ধারা অব্যাহত রাখতে তাঁরাও এবার বিত্তবানদের বাড়িয়ে দেয়া হাতের সহায়তা চাইলেন। এদের একজন বাচ্চু খলিফা জানান, আমাদের সংগঠনের ট্যুরিজম সম্পর্কিত ছোট্ট ব্যবসা, তা এক মাসের বেশি সময় সম্পুর্ণ বন্ধ। তারপরও ধার দেনা করে নিজের সংসারের যোগানের পরে এই মানুষ কয়টার পেটের খাবারের যোগান ধরে রেখেছি। কিন্তু এখন আর চলছে না। তারপরও চালিয়ে যাচ্ছেন।
সারা বিশে^ যখন করোনার আঘাতে মানবজাতি দিশেহারা; বাংলাদেশও এর বাইরে নয়। নিজেকে, পরিবারকে রক্ষায় সবাই তটস্থ সর্বদা। তারপরও নিজেরা সতর্ক থেকে, সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে মানবিক এই কাজে অংশগ্রহণ করায় জন্মভূমি কুয়াকাটাকে সাধুবাদ জানায় সমাজের সকল মানুষ। কিন্তু এখন আর চলছে না তাদের এই মহতি উদ্যোগ।

Share Button