১৭ বাংলাদেশি জেলেকে ফেরত দিয়েছে মিয়ানমার

প্রকাশিত: ৪:২৪ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৬, ২০১৯

সাগরে মাছ শিকারে গিয়ে মিয়ানমার নৌবাহিনীর হাতে আটক ১৭ জেলেকে বাংলাদেশের কোস্ট গার্ডের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। আজ শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ওই জেলেদের ফেরত দেওয়া হয়েছে বলে নিশ্চত করেছেন কোস্ট গার্ডের কমান্ডার মেজবাহ উদ্দিন।

কোস্ট গার্ডের এই কর্মকর্তা বলেন, ‘সরকারের প্রচেষ্টায় মিয়ানমার থেকে ফিশিং ট্রলারসহ ১৭ বাংলাদেশি জেলেকে ফেরত আনা সম্ভব হয়েছে। এই প্রথম নাফনদীর মাঝখানে দুই দেশের আলোচানায় কোস্ট গার্ডের মাধ্যমে কোনো বাংলাদেশিকে ফেরত আনা হলো।’

উদ্ধার হওয়া বাংলাদেশি জেলেরা হলেন, ভোলা জেলা সদরের চুন্নাবাদ এলাকার জাকির হোসাইন (৪৪), একই জেলার চরফ্যাশন উপজেলার নোরাবাদ এলাকার আবুল কালাম (৫৬), গোলদার হাট এলাকার কামাল সওদাগর (৪৯), উত্তর মাদ্রাজ এলাকার নুরুল ইসলাম (৫৯), নীলকমল এলাকার মোতাহার (৫৫), একই এলাকার বেলাল হোছাইন (২৭), মো. ফারুক (৪৩), মো. ছলিম (৪০), চরফ্যাশন সদরের মো. জসিম (৫১), চরফ্যাশন পৌর এলাকার আবুল কালাম (৫৭), একই এলাকার মো. নেছার (৪৬), দৌলতখান উপজেলার কলাখোপা এলাকার মো. আলামীন (১৯), চরখলিফা এলাকার মো. জহিরুল ইসলাম (২৯), চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার মো. শাহ আলম (৬১), একই উপজেলার শোভনদন্দী এলাকার মো. জসিম (৩৩), মুন্সীগঞ্জের টঙ্গী বাড়ি উপজেলার আবু সায়েদ (৩৬) ও ঝালকাঠি রাজাপুর উপজেলার মো. নুরুজ্জামান (৪৬)।

কোস্ট গার্ড জানায়, গত ৪ ডিসেম্বর রাতে সেন্টমার্টিন দ্বীপের দক্ষিণে মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যের রাথিডং উপকূলের মাইও নদীর মোহনায় ইঞ্জিন বিকল হয়ে ১৭ জেলেসহ বাংলাদেশি একটি ফিশিং বোট মিয়ানমারের সমুদ্রসীমায় ঢুকে পড়ে। এরপর ট্রলারসহ জেলেদের আটক করে নিয়ে যায় দেশটির নৌবাহিনীর সদস্যরা।