হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা ১১ সদস্যকে নিয়ে চরম খাদ্য সঙ্কটে ময়না-মজিবর দম্পতি

প্রকাশিত: ৩:২০ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ২২, ২০২০

নিজস্ব সংবাদদাতা, কলাপাড়া, পটুয়াখালী, ২১ এপ্রিল ॥ মোসাম্মৎ মাহিনুর ওরফে ময়না ও মজিবর শেখ দম্পতির ছোট্ট চায়ের দোকানটি করোনার বিস্তার প্রতিরোধের জন্য বন্ধ রয়েছে। দু’জনে মিলে চায়ের দোকানের উপার্জনে পাঁচ জনের সংসার কোনমতে চলছিল।

করোনায় এ দম্পতি এখন কর্মহীন। জোটেনি কোন খাদ্য সহায়তা। পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার তেগাছিয়া বাজরেই দোকান, বাজারেই থাকা এদের। এরই মধ্যে দুইদিন আগে তার মেয়ে-জামাইসহ তাদের ১১ আত্মীয়-স্বজন নারায়নগঞ্জ থেকে এসে বাজার সংলগ্ন আজিমদ্দিন গ্রামের পরিত্যক্ত একটি ঘরে অবস্থান নেয়।

স্থানীয়রা প্রশাসনের হস্তক্ষেপে ওই ঘরটিতে থাকা ১১ সদস্যকে কোয়ারেন্টাইনে নেয়া হয়েছে। কিন্তু কোয়ারেন্টাইনে থাকা ১১ সদস্যকে কে খাদ্য সহায়তার যোগান দেবে। ময়না-মজিবর দম্পতির আত্মীয়-সজন হলেও ১১ জনের খাবারের যোগান দিতে সম্পুর্ণভাবে অক্ষম হয়ে পড়েছেন তারা। ধার-দেনা করে দুইদিন কেটেছে ময়নার।

এখন আর জুটছে না। চরম অসহায় হয়ে পড়েছেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবু হাসনাত মোহাম্মদ শহিদুল হক জানান, মিঠাগঞ্জ ইউনিয়নের চেয়ারম্যানকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। তবে ময়না জানায় তার এবং কোয়ারেন্টাইনে থাকা আত্মীয় ১১ জনের জন্য কোন সহায়তা পাননি।