স্বয়ং জনাব আব্দুর রব সেরনিয়াবাত কলেজের এই নাম প্রস্তাব করেছিলেন

প্রকাশিত: ১০:১২ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৮, ২০২১

তপন চক্রবর্তী ॥ ১৯৬৬ সনে বরিশাল শহরের বি এম স্কুলের হল রুমে এক গুরুত্বপূর্ণ মিটিং হয়েছিল যার বিষয় বস্তু ছিল কলেজটি যা তখন বি এম স্কুলে নৈশ কলেজ হিসাবে চলবে। সেই কলেজটিকে অশ্বিনী দত্তের কালীবাড়ি রোডের বাসভবনে নিয়ে পূর্ণাঙ্গ দিনের কলেজ করা এবং কলেজের নাম করণ করা।

 

এই সভায় শহরের তথা জেলার নাম করা সামাজিক রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব সাংবাদিক ও গুণী ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন। সেখানে উপস্থিত ছিলেন জেলার বিখ্যাত কৃষক নেতা ও রাজনীতিবিদ ও পরবর্তীতে ১৯৭২ সালের ভূমি মন্ত্রী জনাব আব্দুর রব সেরনিয়াবাত, ছিলেন ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন, নুরুল ইসলাম মঞ্জুর তখনকার সরকারি দলের নেতা আব্দুর রব, আব্দুর রহমান বিশ্বাস, আর এছাড়াও ছিলেন সাংবাদিক আব্দুল কাইউম, ছাত্রনেতা মানবেন্দ্র বটব্যাল এবং শহর ও জেলার গণ্যমান্য অনেকে। সভায় জনাব আব্দুর রব সেরনিয়াবাত বক্তব্য রাখেন যে অশ্বিনী দত্তের নিজস্ব এক শহরের মধ্যে অবস্থিত অতি মূল্যবান এক একর সাতচল্লিশ শতাংশ সম্পত্তির উপর অবস্থিত হবে এই কলেজ যেখানে তখন চলছিল অশ্বিনী দত্ত ছাত্রাবাস সেই কলেজের নাম অতি অবশ্যই অশ্বিনী কুমার দত্তের নামেই হওয়া সঠিক কাজ।

 

জনাব আব্দুর রব সেরনিয়াবাত আরো বলেছিলেন যে বি এম স্কুল ও বি এম কলেজ করে অশ্বিনী দত্ত সমস্ত জেলার শিক্ষার অবস্থা বদলে দিয়েছেন। জেলায় তার মত এত বড় অবদান আর কারো নেই অতএব তার নিজের বাসভবনে এই কলেজ তার নামেই হওয়া সঠিক।

জনাব আব্দুর রব সেরনিয়াবাত এর এই প্রস্তাবের কেউ কেউ বিশেষ করে তখনকার সরকারি দলের পক্ষ থেকে প্রতিবাদ করেছিলেন। কিন্তু আব্দুর রব সেরনিয়াবাত এর প্রবল ব্যক্তিত্বের সামনে এক সভার প্রায় সকলের সমর্থন থাকায় এ প্রতিবাদ টেকেনি এবং অশ্বিনী দত্তের নামেই এই কলেজটি করার প্রস্তাব গৃহীত হয়। কিন্তু পরবর্তীতে তখনকার আমলাতন্ত্র সরকারী দলের ইঙ্গিত ইত্যাদি সব মিলিয়ে আর কলেজের নামকরণ অশ্বিনী দত্তের নামে হয়ে ওঠেনি।

আজকের বরিশালের অন্যতম গৌরব কৃষক নেতা জনাব আব্দুর রব সেরনিয়াবাতের উক্তি আর ইচ্ছার প্রতিফলন কেন ঘটানো যাবে না। বরিশাল জেলা তথা বিভাগে শিক্ষার জন্য অশ্বিনী কুমার দত্তের মত এত বড় অবদান তো আর কারো নেই। সমস্ত দেশে শিক্ষিতের হিসাবে এই বিভাগে বরগুনার জেলা দ্বিতীয় আর বরিশাল জেলা তৃতীয় এবং এর সবটা কৃতিত্বই মহাত্মা অশ্বিনী কুমার দত্তের। এই অবস্থায় মরহুম এবং শ্রদ্ধেয় আব্দুর রব সেরনিয়াবাতের ইচ্ছাপূর্ণকারী এই কলেজ কেন অশ্বিনী দত্তের নামে হবে না।