স্ত্রীকে হত্যার দায়ে স্বামীর ফাঁসির আদেশ

প্রকাশিত: ৮:২৫ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২০

মোঃ জিয়াউদ্দিন বাবু ::

স্ত্রী কে হত্যার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় স্বামী মোঃ মনির হোসেন কে মৃত্যুদণ্ড প্রদান করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার বরিশালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের জজ মোঃ আবু শামীম আজাদ ওই রায় দেন। মৃত্যুদণ্ডের পাশাপাশি ১ লাখ টাকা অর্থ দণ্ডে দণ্ডিত করা হয়েছে আসামীকে।

ওই আদালতের স্টেনো কাওসার হোসেন টিটু মামলার বরাত দিয়ে জানান, বাদী হিজলার রাহেরচর গ্রামের মোঃ অলিউদ্দিন এর বোন মাকসুদা বেগমের সাথে ঘটনার ৩ বছর পূর্বে আসামী মোঃ মনির হোসেনের বিয়ে হয়। বিয়ের পর তাদের তামান্না (২) নামের ১টি মেয়ে সন্তান জন্ম গ্রহণ করে। বিয়ের কিছুদিন পর আসামী মনির হোসেন ৫০ হাজার টাকা যৌতুক দাবী করেন।

যৌতুক দিতে অস্বীকার করায় প্রায়ই বাদীর বোনকে মারধর করতেন। নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে কয়েকবার বাবার বাড়ীতে চলে আসেন। ২০১৩ সনের ৬ জানুয়ারি ৫০ হাজার টাকা যৌতুকের জন্য এলোপাতাড়ি কিল ঘুষি লাথি মারেন। এতে ২০১৩ সালের ৬ জানুয়ারি রাতে আসামীদের বাড়ীতে বাদীর বোন মারা যান।

এ ঘটনায় ২০১৩ সনের ৭ জানুয়ারি হত্যাকাণ্ডের শিকার মাকসুদা বেগমের ভাই অলিউদ্দিন বাদী হয়ে হিজলা থানায় ৪ জনকে আসামী করে হত্যা মামলা দায়ের করেন। হিজলা থানার এস আই ইয়াকুব হোসাইন তদন্ত শেষে ২০১৩ সনের ১৯ মে মামলায় মনির হোসেনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দেন। আদালত ৮ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে হিজলার বাহের চর গ্রামের সফি রাড়ীর ছেলে মোঃ মনির হোসেনকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দেন। পাশাপাশি ১ লাখ টাকা অর্থদণ্ডে দণ্ডিত করা হয়।

রায় শেষে আসামীকে বরিশাল কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠিয়ে দেয়া হয়। সরকার পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন অ্যাড. ফয়জুল হক ফয়েজ।

Sharing is caring!