সুস্থ হয়ে উঠার চার মাস পরেও থাকে অ্যান্টিবডি

প্রকাশিত: ৪:২৩ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২, ২০২০

বার্তা ডেস্ক ::

ইউরোপিয়ান দেশ আইসল্যান্ডের ৯০ শতাংশ করোনা রোগী সুস্থ হয়ে উঠার পর তাদের দেহে অ্যান্টিবডি বৃদ্ধি পেয়েছে এবং চার মাসের বেশি সময় ধরে সেটি স্থির ছিল বলে সম্প্রতি প্রকাশিত একটি গবেষণায় বলা হয়েছে। আইসল্যান্ডে চালানো এই গবেষণাটি মঙ্গলবার দ্য নিউ ইংল্যান্ড জার্নাল অব মেডিসিন সাময়িকীতে প্রকাশিত হয়েছে।

এই গবেষণাটি চালিয়েছে আইসল্যান্ডের বায়োফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানি ডিকোড জেনেটিকস। এ বিষয়ে কোম্পানিটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কারি স্টেফানসন বলেন, এই গবেষণা পুনরায় সংক্রমণ ঝুঁকি এবং ভ্যাকসিনের স্থায়িত্বের ওপর প্রভাব ফেলতে পারে

গবেষণাটি আইসল্যান্ডের ৩০ হাজারের বেশি মানুষের ওপর চালানো হয়েছে। দেশটিতে কি পরিমাণ মানুষ করোনায় আক্রান্ত এবং সুস্থ হয়ে উঠার পর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কেমন থাকে সেটি যাচাই করার জন্যই এই গবেষণাটি চালানো হয়েছে বলে জানা গেছে।

গবেষণায় দেখা গেছে, পুরো আইসল্যান্ডের মাত্র ১ শতাংশ মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। আক্রান্তদের মধ্যে ৫৬ শতাংশদের পিসিআর টেস্টের মাধ্যমে করোনা শনাক্ত হয়েছে। বাকি ১৪ শতাংশ মানুষ কোনো রকম করোনা পরীক্ষা করাননি তবে উপসর্গ দেখা দেওয়ার পর তাদেরকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছিল।আর বাকি ৩০ শতাংশ মানুষ অ্যান্টিবডি টেস্ট করানো হয়েছে যে তারা করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন কিনা তা জানার জন্য।

দেখা গেছে, পিসিআর টেস্টের মাধ্যমে শনাক্ত হওয়া এক হাজার ২১৫ জন করোনা রোগীর মধ্যে ৯১ শতাংশেরই প্রথম দুই মাস অ্যান্টিবডি বৃদ্ধি পায় এবং পরে তা স্থির হয়ে যায়। যদিও গবেষণাটি একটি দেশের মানুষের ওপর চালানো হয়েছে এবং এটি বিশ্বের অন্যান্য দেশের ক্ষেত্রে একই রকম নাও হতে পারে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

এর আগেও এক গবেষণায় বলা হয়েছিল যে কোভিড-১৯ রোগ থেকে সুস্থ হয়ে উঠার কয়েক মাসের মধ্যেই অ্যান্টিবডির পরিমাণ কমে যায়।

Sharing is caring!