সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শেখ কুতুব উদ্দিন আর নেই : আগামীকাল দাফন

প্রকাশিত: ১০:৫৫ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৯, ২০২১

স্টাফ রিপোর্টার ॥ সবাইকে কাঁদিয়ে না ফেরার দেশে চলে গেলেন বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ বরিশাল জেলার সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ কুতুব উদ্দিন আহমেদ। মঙ্গলবার সকাল ১০টা ১০ মিনিটে রাজধানীর ল্যাব এইড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি (ইন্না ..রাজিউন)।

 

মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৮ বছর। তিনি তিন ছেলে এবং দুই মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। মরহুমা কুতুব উদ্দিন আহমেদ বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের ২১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ সাইদ আহমেদ মান্নার বাবা এবং নগরীর মুসলিম গোরস্থান রোড এলাকার নিবাসী। দীর্ঘ দিন ধরে তিনি হৃদযন্ত্র এবং ফুসফুসে ইনফেকশন জনিত সমস্যায় ভুগছিলেন বলে পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন।

 

ছেলে কাউন্সিলর সাইদ আহমেদ মান্না জানিয়েছেন, ‘বেশ কিছুদিন ধরে বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন তার বাবা। গত রবিবার তিনি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে প্রথমে তাকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ওই দিন দুপুরেই তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য হেলিকপ্টার যোগে ঢাকায় নিয়ে ল্যাব এইড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার সকালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেণ। দুপুরে রাজধানীর মোহাম্মদপুর এলাকায় তার বাবার প্রথম নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। পরে বিশেষ ব্যবস্থায় তাকে বরিশালে নিয়ে আসা হয়েছে বলে জানান মান্না।

 

বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট গোলাম সরোয়ার রাজিব জানান, ‘বুধবার সকাল ১০টায় নগরীর চৌমাথা সরকারি সৈয়দ হাতেম আলী কলেজ মাঠে বীরমুক্তিযোদ্ধা শেখ কুতুব উদ্দিনের প্রতি রাষ্ট্রীয় সম্মাননা গার্ড অব অনার প্রদর্শন করা হবে। সেখানে দ্বিতীয় নামাজে জানাযা শেষে মুসলিম গোরস্থানে সমাহিত করা হবে।

এদিকে, শেখ কুতুব উদ্দিন আহমেদের মৃত্যুতে বরিশাল জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সাত দিনের শোক কর্মসূচি ঘোষণা করেছে। মঙ্গলবার থেকে এ কর্মসূচি শুরু হয়েছে। মুক্তিযোদ্ধা সংসদ বরিশাল জেলা কমান্ডের সাবেক সাংগঠনিক কমান্ডার এনায়েত হোসেন চৌধুরী এই তথ্য জানিয়েছেন।
জানাগেছে, ‘বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ কুতুব উদ্দিন আহমেদ ১৯৭১ সালে ৯ নম্বর সেক্টরে স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশগ্রহণ করে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন। এছাড়া তিনি বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ বরিশাল জেলা কমান্ডারের দায়িত্ব পালন করেছেন দীর্ঘ দিন।

 

তার মৃত্যুতে পরিবার, মুক্তিযোদ্ধা, বন্ধু, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক মহলসহ নগরজুড়ে শোক নেমে এসেছে। তার মৃত্যুতে শোক জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে বিভিন্ন বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবী সংগঠন। শোক প্রকাশ করেছেন পার্বত্য শান্তিচুক্তি বাস্তবায়ন পরীবিক্ষণ কমিটির মন্ত্রী মর্যাদায় আহ্বায়ক আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ-এমপি, পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী কর্ণেল (অব.) জাহিদ ফারুক শামীম-এমপি, বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ, বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তালুকদার মো. ইউনুস, মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি একেএম জাহাঙ্গীর হোসাইনসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।
তারা মরহুমের বিদেহী আত্মার শান্তি এবং মাগফেরাত কামনা করেছেন। পাশাপাশি মরহুমের শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন।