সাবেক কাউন্সিলর মাইনুল প্রতারণা মামলায় জেল হাজতে

প্রকাশিত: ১০:২১ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৫, ২০২১

মো. জিয়াউদ্দিন বাবু ॥ নগরীর ৫নং ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর ও বিএনপি নেতা মাইনুল হক সহ ২ জনকে জেল হাজতে পাঠিয়েছেন আদালত। গতকাল বরিশালের মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট পলি আফরোজ তাদের জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠিয়ে দেন। হাজতে যাওয়া অন্য আসামী হচ্ছেন হানিফ হাওলাদার, মামলার নথি সূত্রে জানা গেছে, তাদের বিরুদ্ধে ২০১৯ সালের ১৬ সেপ্টেম্বর মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করেন নগরীর পদ্মাবতী এলাকার বাসিন্দা আঃ রব। আসামীরা ২০১৪ সালে চর বদনা মৌজায় ডোবা জমি বিক্রির প্রস্তাব করলে তিনি রাজি হন।

 

২০১৪ সালের ১৩ জানুয়ারী আসামীরা নগদ ৭ লাখ ১৭ হাজার টাকা দেন। এক লাখ ২০ হাজার টাকা দিয়ে ওই দিনই জমি রেজিস্ট্রি করেন। জমি দলিল করার পর সীমানা পিলার দিয়ে দখল বুঝিয়ে দেবার অঙ্গীকার করেন। জমি দলিল করার পর আঃ রব দুই লাখ টাকা ব্যয় করে বালু ফেলে ডোবা ভরাট করেন। অভিযুক্তদের কাছে দখল বুঝিয়ে দেয়ার দাবী করলে তারা বুঝিয়ে দেননি। এ ব্যাপারে আদালতে মামলা করলে আদালত থানা পুলিশকে তদন্তের নির্দেশ দেন। কোতয়ালী থানার এস আই মোস্তাফিজুর রহমান তদন্তের সত্যতা পেয়ে আদালতে প্রতিবেদন জমা দেন। আদালত সমন আদেশ দিলে অভিযুক্তরা গুরুত্ব দেননি। আদালত গত ৭ জানুয়ারী মামলার চার্জশীট করে এবং অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারী করেন। আসামীরা ১৮ জানুয়ারী আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন জানান।

 

বাদী আঃ রব এর সাথে তাদের আপোষের শর্তে আদালত ধার্য তারিখ পর্যন্ত অন্তর্বর্তীকালীন জামিন মঞ্জুর করেন। জামিন পেয়ে আসামীরা বাদীর সাথে আপোস না করে আদালতের দেয়া জামিনের শর্ত ভঙ্গ করেন। গতকাল আদালতে হাজির হয়ে পুনরায় জামিন চান। বাদী আপোস না করায় বাদী জামিন বাতিল করার দাবী জানায়। আদালত বাদীর আবেদন মঞ্জুর করে আসামীদের জামিন বাতিল করে জেল হাজতে পাঠিয়ে দেন।