সদ্য ঘোষিত বিএম কলেজ ছাত্রদলের কমিটি থেকে ১২ জনের পদত্যাগ

প্রকাশিত: ৯:৪২ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১, ২০২১

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বরিশাল পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের পর এবার কলেজ ছাত্রদলের আহবায়ক কমিটি থেকে পদত্যাগ করলেন বরিশাল সরকারি ব্রজমোহন (বিএম) কলেজের নব গঠিত আহবায়ক কমিটি থেকে ১২ সদস্য। নতুন আহবায়ক কমিটিতে সৎ যোগ্য ও ত্যাগী ছাত্রনেতাদের মূল্যায়ন না করে তাদেরকে বাহিরে রেখে নব গঠিত আহবায়ক কমিটিতে নারী কেলেঙ্কারীতে জড়িত ও কুরুচিপূর্ণ ব্যক্তিত্বের অধিকারী, বিবাহিত সহ বিএম কলেজের ছাত্রদলের সাথে সম্পৃক্ত নন এমন সব লোকদের নিয়ে বিএম কলেজ শাখা ছাত্রদলের আহবায়ক কমিটি গঠন করায় পদত্যাগ করেছেন তারা। একই সাথে বিএম কলেজের ছাত্র ভাবমূর্তি ফিরিয়ে আনতে অতিসত্ত্বর বিতর্কিতদের আহবায়ক কমিটি থেকে অব্যাহতি দিয়ে সৎ, যোগ্য ত্যাগী মেধাবীদের অন্তর্ভুক্ত করার মাধ্যমে নতুন একটি সুন্দর পরিচ্ছন্ন কমিটি গঠন করার দাবী জানান নব গঠিত কলেজ ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দ।

 

সোমবার বেলা ১২টায় নগরের সদররোডস্থ বিএনপি দলীয় কার্যালয়ে বরিশাল সরকারী বিএম কলেজ শাখার নব গঠিত আহবায়ক কমিটির ২ নং যুগ্ম আহবায়ক মোঃ ইলিয়াস হোসেন লিখিত বক্তব্যে এমন অভিযোগ তুলে ধরেন।

 

এসময় উপস্থিত ছিলেন পদত্যাগকারী ছাত্রদলের ১নং যুগ্ম আহবায়ক মোঃ খালেদ হোসেন বাবর, মোঃ ইলিয়াস হোসেন, এস.এম শামীম রেজা শুভ, সদস্য মোঃ আরিফুর রহমান, যুগ্ম আহবায়ক মোঃ আশিকুল ইসলাম শাহীন, নাহিদ সরোয়ার, সিরাজুল ইসলাম রাতুল, নুরাল্লাহ মোমিন, জহির রায়হান, মাহমুদুল হাসান রাসেল,সমি সিকদার ও রুহুল আমিন। সদস্য ঘোষিত বরিশাল বিএম কলেজ ছাত্রদলের যুগ্ম আহবায়ক মোঃ ইলিয়াস হোসেন বলেন, দীর্ঘদিন পর বরিশাল সরকারী বিএম কলেজের মত গুরুত্বপূর্ণ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্র দলের কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে।

 

তবে আন্দোলন-সংগ্রাম ও দলের ক্রান্তিলগ্নে রাজ পথের কাণ্ডারীদের আহবায়ক কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত না করে সেখানে নারী কেলেঙ্কারীর সাথে জড়িত ও বিএম কলেজের সাথে কোন সম্পৃক্ততা নেই এমন সব ছাত্রদের অন্তর্ভুক্ত করে একটি তথাকথিত এবং ছাত্রদলের ভাবমূর্তি ক্ষুণœকারী কমিটি গঠন করে।

 

অপরদিকে বিএম কলেজ ছাত্রদলের সাথে বরাবরই দলীয় কর্মসূচি পালন করা সহ সকল কর্মসূচিতে কাজ করে যাওয়া ত্যাগী ছাত্রদল নেতা সোলায়মান, নিয়ন, শাখওয়াত, জুমার, তাইয়াবনাঈম, এনাম, নিরব, তাহমিদ, বাসার সোহেল সহ দলের অসংখ্য পরিক্ষিত কর্মীদের বঞ্চিত করে অযোগ্য, অথর্ব, কমেডিয়ানকে আহবায়ক করায় ছাত্রদলের সাধারণ নেতাকর্মীরা হতাশা প্রকাশ করেন। এদিকে গত ৩১ জানুয়ারি সদ্য ঘোষিত বরিশাল পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট ছাত্রদলের কমিটির আহ্বায়ক ও সদস্য সচিবকে প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে সংবাদ সম্মেলনে অনুষ্ঠিত হয়। সেখানেও অভিযোগ করা হয় গত ৭ জানুয়ারি সরকারি বরিশাল পলিটেকনিক কলেজের আহবায়ক কমিটি প্রকাশ করা হয়। কিন্তু ওই কমিটিতে আদর্শিক, যোগ্য, মেধাবী ও ত্যাগী ছাত্র নেতাদের যথাযথ মূল্যায়ন করা হয়নি।

 

প্রকাশিত ওই কমিটির আহবায়ক ফয়সালুর রহমান ইমন ও সদস্য সচিব আব্দুল্ল¬াহ আল মিশনকে বিগত দিনে কোনো আন্দোলন সংগ্রামে দেখা যায়নি। এমনকি বরিশাল পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের ছাত্রদলের সঙ্গে তাদের কোনো সম্পৃক্ততা নেই। এছাড়া তার ছাত্রত্বও নেই।