শীঘ্রই মহানগর ছাত্র ও যুবলীগের কমিটি, ওয়ার্ড আ.লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি এ মাসেই

প্রকাশিত: ১০:৫৬ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১২, ২০২১

শফিক মুন্সি ॥ বরিশাল মহানগর আওয়ামীলীগের আওতাধীন ত্রিশটি ওয়ার্ডে চলতি (জানুয়ারি) মাসেই গঠিত হবে পূর্ণাঙ্গ কমিটি। মঙ্গলবার সংগঠনটির বর্ধিত সভায় এ সিদ্ধান্ত নেন নেতৃবৃন্দ। একই সঙ্গে মহানগর যুবলীগ এবং ছাত্রলীগেও নতুন কমিটি করার ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানা গেছে। সোমবার নগরীর কালীবাড়ি সড়কস্থ সেরনিয়াবাত ভবনে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে মহানগর আওয়ামীলীগের নতুন কমিটির নেতৃবৃন্দের পাশাপাশি ত্রিশটি ওয়ার্ড কমিটি ও অঙ্গ সংগঠন গুলোর নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সকালে উন্মুক্ত সভার পর সন্ধ্যায় রুদ্ধদ্বার বৈঠকে মিলিত হন তারা।

সকালে সভা চলাকালীন সময়ে বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সিটি কর্পোরেশন মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ বলেছেন, ‘বরিশাল মহানগর আওয়ামীলীগ হবে সারাদেশের সকল ইউনিটের কাছে অনুকরণীয়। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে আমরা এমনভাবে কাজ করবো যাতে সকলের কাছে মডেল হতে পারি’। রাতে বৈঠকে যোগদান করা তিনজন নেতা জানান, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে নগরীর আওতাধীন ত্রিশটি ওয়ার্ডে নতুন কমিটি দেওয়া হয়। তবে সেসব ওয়ার্ড কমিটি দীর্ঘদিন যাবৎ পূর্ণাঙ্গ করা হয় নি। আগামী ৩০ জানুয়ারির মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করবেন তারা। একই সঙ্গে আওয়ামীলীগের ভ্রাতৃপ্রতীম অঙ্গসংগঠন গুলোর মধ্যে যেগুলো মেয়াদোত্তীর্ণ সেগুলোয় নতুন কমিটি করার ব্যাপারে পদক্ষেপ নেয়া হবে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি করা হয় বরিশাল জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি, পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তিচুক্তি বাস্তবায়ন ও পরিবীক্ষণ বিষয়ক সংসদীয় কমিটির সভাপতি (মন্ত্রী পদমর্যাদা) ও সাংসদ আবুল হাসানাত আবদুল্লাহকে। কমিটির সভাপতি অ্যাড. একেএম জাহাঙ্গীর এর সভাপতিত্বে সভার সঞ্চালনা করেছেন সাধারণ সম্পাদক ও বরিশাল সিটি কর্পোরেশন মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ।

প্রসংগত, সম্মেলনের প্রায় ১৩ মাস পরে গত ৩ জানুয়ারি পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয় বরিশাল মহানগর আওয়ামীলীগের। নবগঠিত কমিটির সদস্য সংখ্যা ৭৫ জন। এর মধ্যে আইনজীবী ১৩ জন এবং নারী ৪ জন। এছাড়া মহানগর আওয়ামীলীগের নতুন কমিটির ১ জন সিটি মেয়র, ২ জন সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র, ১ জন উপজেলা চেয়ারম্যান ও ৫ জন ওয়ার্ড কাউন্সিলর হিসেবে জনপ্রতিনিধিত্ব করছেন। ত্রিশটি ওয়ার্ডের বর্তমান কমিটির অনেক নেতা মহানগরের নতুন কমিটিতে জায়গা পেয়েছেন।