লোকমান ক্যাসিনো ভাড়া দেয়ার সাথে জড়িত থাকলে বিচার হবে : পাপন

প্রকাশিত: ৩:৪৮ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৯

ক্রীড়াঙ্গনে তার কাছের মানুষ হিসেবে পরিচিত, প্রিয় বন্ধু লোকমান হোসেন ভূঁইয়া মোহামেডান ক্লাবে ক্যাসিনো ভাড়া দেয়ার অভিযোগে অভিযুক্ত হয়ে আটক। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন কি বিব্রত?

তার অবস্থান কি বন্ধু লোকমানের পক্ষে? নাকি বিব্রত হয়ে মুখে কুলুপ এঁটে বসে আছেন? তা জানতে রাজ্যের উৎসাহ-আগ্রহ ছিল সবার। আজ বিকেলে নিজের বাসায় এ চাঞ্চল্যকর ও আলোচিত ঘটনা সম্পর্কে অনেক কথাই বলেছেন নাজমুল হাসান পাপন।

যদিও শুরুতে এ সম্পর্কে সরাসরি মুখ খুলতে রাজি হননি। তবে পরে স্বীকার করেছেন তিনি অবশ্যই বিব্রত। পাশাপাশি পাপন এও বলেন, যদি সত্যিই লোকমান ক্যাসিনো ভাড়া দেয়া ও ক্যাসিনোর সাথে সম্পৃক্ত থাকে, তাহলে তার অবশ্যই বিচার হবে। এবং এই সব কর্মকাণ্ড রোধে সোচ্চার হওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ দিতেও ভুল করেননি বিসিবি সভাপতি।

কিন্তু এ বিষয়ে এখনই চরম মন্তব্য করতে নারাজ। তাইতো বিসিবি সভাপতির মুখে এমন সংলাপ, ‘বিব্রত না মানে কী? বিব্রত না মানে এখনই কমেন্ট করতে রাজি না। আগে জানি কি হয়েছে। আরও নাম আসতে পারে, কারা কারা জড়িত। আগে জানি, বুঝি। এখনই কমেন্ট করার সময় হয়নি। আমি মনে করি কমেন্টের করার জন্য এটা খুবই আগে হয়ে যায়। তবে এটা সত্যি যে আমরা জানতামই না এমন কিছু হচ্ছে। যে পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে আমি মনে করি এটার ফুল সাপোর্ট দেশবাসীর দেয়া উচিত। খালি আমার একার জন্য না, পুরো দেশবাসীর প্রধানমন্ত্রীর এই সিদ্ধান্তকে সমর্থন করা উচিত।’

পাপন আরও যোগ করেন, ‘লোকমান হোসেন ভূঁইয়া যদি ক্যাসিনোর কাছে ক্লাব ভাড়া দিয়ে থাকে এবং তার সঙ্গে যদি সংশ্লিষ্টতা থাকে তাহলে বিচার হবে। এর বাইরে কিছু নয়। এখানে না হওয়ার তো কারণ নেই। মানে আমি যেটা বুঝি যে, এটা না হওয়ার কোনো কারণ নেই। যারা থাকবে তারাই ধরা পড়বে এবং তাদের বিচার হবে। আমরা আশা করি সুষ্ঠু বিচার হোক। আসল যারা দোষী আছে, তারা ধরা পড়ুক।

Sharing is caring!