লটারিতে মেয়েদের স্কুলে ‘সুযোগ’ পেয়েছে তিন ছেলে শিক্ষার্থী!

প্রকাশিত: ৯:৩৫ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১২, ২০২১

বার্তা ডেস্ক :: সারা দেশের সরকারি বিদ্যালয়গুলোতে ভর্তি প্রক্রিয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে লটারিতে। সোমবার সরকারি ৩৯০টি স্কুলে লটারি অনুষ্ঠিত হয়েছে ঢাকার আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে। একই দিন ফল প্রকাশ করে মাধ্যমিক ও শিক্ষা অধিদপ্তর মাউশি। ফলে দেখা যায় ময়মনসিংহের একটি বালিকা বিদ্যালয়ের ভর্তির ‘সুযোগ’ পেয়েছে তিন ছেলে শিক্ষার্থী।

ঘটনাটি ঘটেছে ময়মনসিংহের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বিদ্যাময়ী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে। প্রকাশিত ফলাফলের তালিকায় দেখা গেছে, সেখানে নাম এসেছে তিন ছেলে শিক্ষার্থীর। বিদ্যাময়ী বালিকা বিদ্যালয়ে ‘ভর্তির সুযোগ’ পাওয়া তিন ছেলে শিক্ষার্থী হলো- ফায়াজ জাহাঙ্গীর ইশমাম, মো. জোবায়েরুল হাসান খান ও ফারাবী ইসলাম। চতুর্থ শ্রেণিতে মর্নিং শিফটের ভর্তি তালিকায় এসেছে তাদের নাম।

এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নাছিমা আক্তার সাংবাদিকদের বলেন, ওই তিন ছেলে শিক্ষার্থীকে ভর্তি নেওয়া হবে কি না সেই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এখানে আমাদের বলার কিছু নেই।

মোছা. ওয়াসিমা আকতার লুবনা নামের একজন মেয়ে লটারিতে ঠাকুরগাঁও সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ পেয়েছে। এছাড়া লটারিতে নির্বাচিতদের তালিকায় ‘মো. বোরহানুজ্জামান’ নামের একজনের নাম, আইডি দুইবার দেখা গেছে। আর ঠাকুরগাও সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য নির্বাচিত হয়েছে তিনজন ছেলে।

 

কিভাবে বালিকা বিদ্যালয়ে তিনজন ছেলে ভর্তির সুযোগ পেল, এ প্রশ্নের জবাবে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ আজিজ উদ্দিন ইত্তেফাককে বলেন, অভিভাবকদের ভুলের কারণে এমন হয়েছে। আবেদনে নারী এবং পুরুষ অপশন ছিল। এ ক্ষেত্রে কোনেও মেয়ে যদি পুরুষ অপশনে ক্লিক করে তার ক্ষেত্রে এমনটি হতে পারে।

শিক্ষা অধিদপ্তরের এই কর্মকর্তা বলেন, টেলিটক কারিগরি বিষয়টি নিয়ে কাজ করেছে। বিষয়টি তাদের অবহিত করা হয়েছে। কোনোভাবেই ছেলেদের স্কুলে মেয়ে বা মেয়েদের স্কুলে ছেলেদের ভর্তির সুযোগ দেওয়া হবে না বলে জানান এই কর্মকর্তা।

সারা দেশে ভর্তির জন্য নির্বাচিত হওয়া ৭ জন শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে এমনটি হয়েছে বলে জানান তিনি।