রাস্তাঘাট ঠিক করার দায়িত্ব আমার, আপনারা আস্থা রাখুন- পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী

প্রকাশিত: ১০:৪৭ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৯, ২০২১

স্টাফ রিপোর্টার ॥ পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্নেল (অব.) জাহিদ ফারুক শামীম- এমপি বলেছেন, ‘আগে নলকূপ নিতে হলেও লোকজনকে টাকা দিতে হতো। আমার নির্দেশনা সরকারি টাকার বাহিরে এক টাকাও কেউ নিতে পারবে না। আপনারা আমাকে ভোট দিয়ে সংসদ সদস্য বানিয়েছেন। আপনার এলাকার রাস্তাঘাট ঠিক করার দায়-দায়িত্ব আমার। আপনারা আমার ওপর আস্থা রাখেন। শুক্রবার বিকালে বরিশাল সদর উপজেলার সায়েস্তাবাদ ইউনিয়নে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।

 

এসময় প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, ‘বরিশাল সদর উপজেলার রাস্তাঘাট উন্নয়নে ৩৯টি প্রকল্প অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে। এগুলো অনুমোদন হলে যেকোন সময় এক সাথে পুরো সদর উপজেলার রাস্তাঘাটের কাজ শুরু হবে। তাছাড়া ৬৪টি রাস্তা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। নেহালগঞ্জে ব্রিজ করা হবে, যার উদ্বোধন হবে আগামী সপ্তাহে। বদিউল্লাহ ব্রিজের জন্য কাজ প্রক্রিয়াধীন আছে।

তিনি বলেন, ‘বিগত দিনে সদর আসনে সবসময় বিএনপি’র প্রার্থীকে ভোট দিয়ে বিজয়ী করা হতো। কি কারণে বিজয়ী করা হতো আমি জানি না। কারণ বিগত ২০ বছরে বরিশাল সদর উপজেলায় কোন উন্নয়নই হয়নি। বরিশাল শহরে যতটুকু উন্নয়ন হয়েছে প্রয়াত শওকত হোসেন হিরন যখন মেয়র ছিলেন তখন হয়েছে। উনিও ইন্তেকাল করেছেন, বরিশাল শহরের উন্নয়ন বন্ধ হয়ে গেছে।

 

বর্তমান সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নের তথ্য তুলে ধরে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘দশবছর আগে আমরা অর্থনৈতিকভাবে দুর্বল ছিলাম। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বেই বাংলাদেশ আজকে অর্থনৈতিকভাবে অনেক স্বাবলম্বী হয়েছে। যার জন্য আমরা বিভিন্ন নদী ভাঙন কবলিত এলাকার প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে পারছি।

 

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘আপনারা শুনে আশ্চর্য হবেন, বর্তমানে বাংলাদেশে চলমান প্রকল্প আছে ১০৬টি এবং এক এক একটি প্রকল্পের আকার অনেক বড়। ২শত কোটি, হাজার কোটি এমনকি ১০ হাজার কোটি টাকার প্রকল্পও আমরা বাস্তবায়ন করছি। এটা শুধুমাত্র সম্ভব হয়েছে জননেত্রী শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্বের কারণে।

 

আসন্ন সদর উপজেলার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন প্রসঙ্গে প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক শামীম- এমপি বলেন, ‘আপনাদের দেখভালের জন্য ভালো লোককে চেয়ারম্যান বানান। যে আমার কথা শুনবে। আমাদের এখানে অনেকেই চেয়ারম্যান প্রার্থী হতে পারেন। তবে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যাকে মনোনয়ন দিবেন তার পক্ষেই আপনারা কাজ করবেন।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘আমি চেষ্টা করবো আপনাদের মনোনীত প্রার্থীর জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে মনোনয়ন নিয়ে আসার জন্য। যাতে করে আমি যেভাবে চাই সেভাবে আমার সংসদীয় এলাকায় কাজ কর্ম হয় এবং আমরা সততার সাথে কাজ করে আপনাদের এলাকার উন্নয়ন তরিৎ গতিতে করতে পারি।

 

শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন বরিশাল মহানগর যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মাহমুদুল হক খান মামুন, জেলা ছাত্রলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি জোবায়ের আবদুল্লাহ জিন্নাহ, মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি জসিম উদ্দিন, সায়েস্তাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মামুন তালুকদার প্রমুখ।