রাজাপুরে ওএমএসের চাল আত্মসাৎ, দুইজনের দন্ড

প্রকাশিত: ৩:২৫ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ২২, ২০২০

রাজাপুর প্রতিনিধি ॥ ঝালকাঠি রাজাপুরে হতদরিদ্রদের জন্য সরকারি খাদ্যবান্ধব কর্মসূচি ওএমএসের চাল অবৈধভাবে মজুদ করার দায়ে ডিলারসহ দুইজনকে ৬ মাসের কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। গতকাল সোমবার দুপুরে উপজেলা শুক্তাগড় ইউনিয়নের কেওতা ঘিগড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

দন্ডিত ডিলার মাহাদি হাসান (২৫) শুক্তাগড় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি সদস্য মো. শাহজাহান খানের ছেলে ও হাচেন আলী হাওলাদার (৭০) সংরক্ষিত আসনের স্থানীয় নারী ইউপি সদস্য সোনিয়া বেগমের শ্বশুর ও ১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি। এ ঘটনায় সাজাপ্রাপ্তদের বাড়িথেকে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির সুবিধাভোগীদের ৭টি কার্ড জব্দ করা হয়েছে।

জানা যায়, দরিদ্র সুবিধাভোগীদের ভুয়া কার্ড তৈরি করে ডিলার মাহাদি ও হাচেন হাওলাদার একে অপরের যোগসাজসে দরিদ্রদের জন্য বরাদ্দকৃত সরকারি চাল আত্মসাৎ করে নিজেদের বাড়িতে মজুদ করছেন, স্থানীয়দের কাছ থেকে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাদের বাড়িতে অভিযান চালায় ভ্রাম্যমান আদালত। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট মো. সোহাগ হওলাদার অভিযুক্ত হাচেন আলীর বাড়ি থেকে ৬ বস্তা ওএমএসের চাল জব্দ করেন।

পরে হাচেন আলীর দেওয়া স্বীকারোক্তীর ভিত্তিতে ডিলার মাহাদিকে আটক করা হয়। পরে দুজনেই অপরাধ স্বীকার করলে তাদের ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড দেন বিচারক।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক মো. সোহাগ হওলাদার বলেন, দরিদ্রদের জন্য সরকারের খাদ্যবান্ধব কর্মসূচীর চাল একে অপরের জোগ সাজসে অবৈধ ভাবে মজুত করার দায়ে ডিলারসহ দুইজনকে ৬ মাসের কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে।

এ ছাড়াও তাদের বিরুদ্ধে থানায় সাধারণ ডায়েরী করা হবে। যাতে পরবর্তীতে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) এ কাজে জড়িতদের সহজেই খুঁজে বের করতে পারে।

Sharing is caring!