রাঙ্গাবালীতে ত্রাণ পেল বিচ্ছিন্ন দ্বীপ চরের মানুষ

প্রকাশিত: 12:56 PM, April 25, 2020

রাঙ্গাবালী (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি: খাদ্য সহায়তা পেল পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলার বিচ্ছিন্ন দ্বীপ চরের মানুষ। শনিবার দুপুরে চর কাশেম দ্বীপের ৫৬টি পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী দেয়া হয়। গত ২১ এপ্রিল ‘অনাহারে-অর্ধহারে রাঙ্গাবালীর ৪ দ্বীপ চরের মানুষ’ শিরোনামে বিভিন্ন গনমাধ্যমে একটি সংবাদ প্রকাশিত। সংবাদটি দেখে ‘দেশ ফাউন্ডেশন’ নামের একটি বেসরকারী সংগঠন দ্বীপ চরের মানুষের জন্য খাদ্য সামগ্রীর ব্যবস্থা করেন। খাদ্য হিসেবে- ৩কেজি চাল, ১ কেজি আলু, ১ কেজি আটা, আধা কেজি ডাল ও আধা লিটার সোয়াবিন তেল দেয়া হয়।

জানাগেছে, রাঙ্গাবালী উপজেলায়- চরকাশেম, চরনজীর, চরআন্ডা ও কলাগাছিয়া নামের বিচ্ছিন্ন ৪টি দ্বীপচর রয়েছে। যেখানে সড়ক পথে কোন যোগাযোগ নেই। অনেকের কাছে এই চরগুলোর নাম অজনা। সেখানে যেতে হয় নৌকা অথবা ট্রলারে করে। করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে ওই দ্বীগগুলোর নি¤œ আয়ের মানুষ প্রায় এক মাস যাবৎ কর্মহীন। যারা সকলেই জেলে অথবা দিনমুজুর। লকডাউনে তারা দ্বীপের মধ্যে আটকা পরেছিল। অনেক পরিবার না খেয়ে অনাহারে ছিল।

পরে বিষয়টি স্থানীয় সংবাদকর্মীরা বিভিন্ন গনমাধ্যমে তুলে ধরলে সংবাদটি ‘দেশ ফাউন্ডেশন’ নামের একটি সংগঠনের নজরে পরে। এরপর দেশ ফাউন্ডেশনের পক্ষথেকে ডা.পরাগ হোসেন যোগাযোগ করেন রাঙ্গাবালী প্রেস ক্লাবের সভাপতি জোবায়ের হোসেন এর সাথে। পরে রাঙ্গাবালী প্রেস ক্লাবের মাধ্যমে চরকাশেম দ্বীপের ৫৬টি পরিবারের মাঝে খাবার সামগ্রী পৌঁছে দেয়া হয়।

খাবার সামগ্রী বিতরনকালে রাঙ্গাবালী সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি জাবির হোসেন ও রাঙ্গাবালী প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক কামরুল হাসান রুবেল উপস্থিত ছিলেন।
দেশ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মো.মাসুক হাসান জানান, পত্রিকার মাধ্যমে আমরা দ্বীপ চরের লোকেদের দুর্দিনের কথা জানাতে পেরে কিছু সহযোগীতা করার চেষ্টা করি। যতটা পারি আগামী দিনেও তাদের পাশে দাড়াবো, ইনশাল্লাহ।

Share Button