যেকোনো আঘাত মোকাবিলায় সতর্ক থাকতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত: ৯:৫৫ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২১

বার্তা ডেস্ক ॥ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘যখনই দেশ এগিয়ে যেতে থাকে, যখন মানুষ ভালো থাকার স্বপ্ন দেখতে শুরু করে তখনই একটা আঘাত আসার সম্ভাবনা থাকে। এবারও সেটা মোকাবিলার জন্য সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে।’ মঙ্গলবার সকালে গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যোগ দিয়ে এনইসি সম্মেলন কক্ষে শুরু হওয়া সভায় বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। তিনি বলেন, ‘অনেক উন্নত দেশ এখনো ভ্যাকসিন আনতে পারেনি, সেখানে বাংলাদেশ শুরু করেছে। যখন গবেষণা চলছিল আমরা তখন অগ্রিম টাকা দিয়ে রেখেছিলাম। মানুষ ভোট দিয়ে ক্ষমতায় এনেছিল বলেই এগুলো করতে পেরেছি।’ শুধুমাত্র চারলেনে রূপান্তর করতেই ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে কিলোমিটার প্রতি প্রায় ৮১ কোটি টাকা ব্যয় করবে সরকার। বাংলাদেশের মানুষের যখন ভালো সময় আসে, দেশের মানুষ যখন ভালো থাকে, যখন মানুষের জীবনের মান একটু উন্নত হয়, তখনই আঘাত আসার আশঙ্কা থাকে। তাই সবাইকে একটু সতর্ক থাকা দরকার। শেখ হাসিনা বলেন, আজকে করোনা ভাইরাস বিশ্বব্যাপী প্রভাব ফেলেছে। মহামারী আকারে দেখা দিয়েছে। আমরা সীমিত সম্পদ দিয়ে মোকাবেলা করেছি। আমাদের ভৌগোলিক সীমানা ছোট, জনসংখ্যার দিক দিয়ে বড় দেশ, সেই দেশের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। করোনা মোকাবিলায় যথাসাধ্য চেষ্টা করে নিয়ন্ত্রণ রাখতে সক্ষম হয়েছি। স্বাস্থ্য সুরক্ষার জন্য আমরা বিভিন্ন ধরনের নির্দেশনা দিয়েছি। সাথে সাথে করোনা প্রতিরোধে টিকা দেওয়া শুরু করেছি। অনেক উন্নত দেশ এখনো ভ্যাকসিন আনতে পারেনি। ভ্যাকসিন নিয়ে যখন গবেষণা হচ্ছে, যে জায়গায় গবেষণা হচ্ছে সেখান থেকে ক্রয় করার জন্য আমরা চেষ্টা করেছি। এর পাশাপাশি আমরা আগাম টাকা দিয়েছি ভ্যাকসিনের জন্য। ডাব্লিউএইচও (বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার) যখন ভ্যাকসিন অনুমোদন দেবে তখনই আমরা যেন ভ্যাকসিন পেতে পারি সেই ব্যবস্থা ব্যবস্থা করেছি, যেন দেশবাসীকে ভ্যাকসিন যথাসময়ে দিতে পারি এবং আমরা এ কাজ করতে সক্ষম হয়েছি। আমি সেই জন্য সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই। দেশবাসী, প্রশাসন, সশস্ত্র বাহিনী, রাজনৈতিক দল সবাই সহযোগিতা করেছে বলেই আমরা করোনা ভাইরাস মোকাবেলা করতে পেরেছি। প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, দেশবাসী আমাদের সহায়তা করেছে। তাদের সহায়তার জন্য তাদের সেবা করার সুযোগ পাচ্ছি। দেশবাসী ভোট দিয়েছে বলেই ক্ষমতায় এসে তাদের সেবা করার সুযোগ পেয়েছি। করোনা ভাইরাসে সারা বিশ্বের অর্থনীতিও অচল। উন্নত দেশও যেখানে ভ্যাকসিন দিতে পারেনি বাংলাদেশ কিন্তু সেটা পেরেছে এবং দৃষ্টান্ত আমরা দেখাতে পেরেছি।