যাত্রী পারাপার, ট্রলার জব্দ, মাঝির জেল, ২ যাত্রী কোয়ারেন্টাইনে

প্রকাশিত: ১:২১ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২২, ২০২০

সীমান্ত হেলাল, মনপুরা ( ভোলা) প্রতিনিধি ॥
ভোলার মনপুরায় নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে যাত্রী পারাপারের দায়ে এক ট্রলারসহ মাঝিকে আটক করেছে পুলিশের একটি টিম। পরে ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক ইউএনও বিপুল চন্দ্র দাস ঘটনাস্থলে আটককৃত মাঝিকে একমাসের কারাদন্ড দেন।

এছাড়াও ওই ট্রলারযোগে রাঙ্গাবালী ও শরিয়তপুর থেকে আসা দুই যাত্রীকে সরকারি ডিগ্রী কলেজ ভবনে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

বুধবার দুপুর ২ টায় উপজেলার উত্তর সাকুচিয়া ইউনিয়নের লতাখালী নামক স্থানে যাত্রী নিয়ে আসার পর এই ট্রলারটি আটক করা হয়।

আটককৃত মাঝি হলেন, উপজেলার উত্তর সাকুচিয়া ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা নুরুল হকের ছেলে সামসুদ্দিন মাঝি (৪৫)। এছাড়াও প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে দেওয়া দুই যাত্রী হলেন, শরিয়তপুরের ঘোষেরহাটের বাসিন্দা আবদুল জলিল ও পটুয়াখালী রাঙ্গাবালী উপজেলার বাসিন্দা মোঃ হানিফ।

মনপুরা থানার ওসি সাখাওয়াত হোসেন জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশের একটি টিম লতাখালী অভিযান চালায়। যাত্রীবাহি ট্রলারের মাঝি পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ট্রলারে থাকা ৩০-৩৫ জনের উপরে যাত্রীদের নদীর মাঝখানে নামিয়ে দেয়। পরে পুলিশ সেখানে গিয়ে মাঝিসহ দুই যাত্রীকে আটক করে নিয়ে আসে। সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে প্রতিদিন মাঝি যাত্রী পারাপার করছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক বিপুল চন্দ্র দাস জানান, করোনা সংক্রমণ রোধে উপজেলার সকল গণপরিবন ও যাত্রীবাহি ট্রলার চলাচল নিষেধাজ্ঞা জারী করা হয়েছে। কিন্তু সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে যাত্রী পারাপারের দায়ে মাঝিকে ঘটনাস্থলে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে একমাসের কারাদন্ড দেওয়া হয়। এছাড়াও দুই যাত্রীকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।