মেয়েকে শ্লীলতাহানির দায়ে বাবার যাবজ্জীবন


Deprecated: get_the_author_ID is deprecated since version 2.8.0! Use get_the_author_meta('ID') instead. in /home/ajkerbarta/public_html/wp-includes/functions.php on line 4861
প্রকাশিত: ১০:১৪ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২৪, ২০১৯

গাজীপুরের টঙ্গীতে নিজের মেয়েকে ধর্ষণের দায়ে বাবাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। সেই সাথে ২০ হাজার টাকা জরিমানা এবং অনাদায়ে আরও ছয়মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। বুধবার সকালে গাজীপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক এমএলবি মেছবাহ উদ্দিন আহমেদ এ রায় দেন।
সাজা প্রাপ্ত মো. আইনাল মিয়া (৩৮) শরীয়তপুরের কোদালপুর গ্রামের নূর মোহাম্মদের ছেলে। তিনি টঙ্গীর এরশাদ নগরের তালতলা এলাকায় থাকতেন।
মামলার বিবরণে জানা গেছে, স্ত্রী ছয় বছর আগে তিন মেয়েকে রেখে মারা গেলে দ্বিতীয় বিয়ে করেন আইনাল মিয়া। পরে দ্বিতীয় স্ত্রীও চলে গেলে তিন মেয়েকে নিয়ে বসবাস করছিলেন।
২০১৫ সালের ১৫ এপ্রিল আইনাল মিয়া ভয়ভীতি ও প্রলোভন দেখিয়ে তার ১২ বছর বয়েসী মেয়েকে ধর্ষণ করে। এভাবে বিভিন্ন সময় ধর্ষণের ফলে মেয়েটি অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। বিষয়টি প্রতিবেশীদের নজরে পড়লে ছয় মাসের অন্তঃস্বত্ত্বা মেয়েটিকে স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলরের কার্যালয়ে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে মেয়েটি পিতার হাতে ধর্ষণের বিষয়টি স্বীকার করলে বাবা পালিয়ে যায়। পরে এঘটনায় মেয়েটির পক্ষে প্রতিবেশী রেখা বেগম বাদী হয়ে ওই বছরের ৩১ আগষ্ট টঙ্গী মডেল থানায় মামলা করেন।
পরে দীর্ঘদিন শুনানী ও যুক্তিতর্ক শেষে আদালত আজ এ আদেশ দেন। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ছিলেন মো. শাহজাহান। সূত্র ইউএনবি।