মুলাদীতে বন্যায় ভেসে গেছে ৪ কোটি টাকার মাছ : ক্ষতিগ্রস্ত সাড়ে ১২শ মাছচাষী

প্রকাশিত: ৯:১২ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৩, ২০২০

মুলাদী প্রতিনিধি ॥

মুলাদীতে বন্যার পানি ও টানা বর্ষণে প্রায় সাড়ে ১৮’শ মাছের খামার থেকে চার কোটি টাকার মাছ ভেসে গেছে। এতে সাড়ে ১২’শ মাছচাষী ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন বলে জানিয়েছে উপজেলা মৎস্য অফিস। ক্ষতিগ্রস্তদের আর্থিক সহায়তার জন্য তালিকা প্রস্তুত করে জেলা মৎস্য অফিসে প্রেরণ করা হয়েছে।

উপজেলা মৎস্য অফিস সূত্র জানায় গত ১৬ আগস্ট থেকে টানা ৮ দিনের ভারী বর্ষণ ও নদীর পানি বৃদ্ধির ফলে উপজেলার বিভিন্ন স্থান পানিতে নিমজ্জিত হয়। এতে উপজেলার ৭টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভার ১২৫০জন মাছচাষীর খামার, পুকুর, ডোবাসহ সাড়ে ১৮শ মাছের খামার পানিতে তলিয়ে যায় এবং এসব খামার থেকে প্রায় ৪ কোটির টাকার মাছ ভেসে যায়।

উপজেলার কাজিরচর ইউনিয়নের ফাইভ স্টার মৎস্য খামারের মালিক আলহাজ্ব মন্টু বিশ্বাস জানান, তার মাছের খামারে প্রায় ২৫ লক্ষাধিক টাকার মাছ ছিলো। পানি বৃদ্ধির ফলে খামারটি নিমজ্জিত হয়ে সব মাছ ভেসে গেছে। সফিপুর ইউপি চেয়ারম্যান আবু মুছা হিমু মুন্সী জানান, ওই ইউনিয়নের সকল মাছের খামার, পুকুর ও ঘের নিমজ্জিত হওয়ায় মাছচাষীরা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। এসকল মাছচাষীরা সরকারি সহায়তা না পেলে পুনরায় মাছচাষ শুরু করতে পারবেন না।

উপজেলা সিনিয়র মৎস্য অফিসার সুব্রত গোস্বামী জানান উপজেলার ক্ষতিগ্রস্ত সাড়ে ১২শত মাছচাষীর তালিকা প্রস্তুত করে জেলা মৎস্য অফিসে প্রেরণ করা হয়েছে। সরকারি বরাদ্দ পাওয়া গেলে দ্রুত ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে বিতরণ করা হবে।

Sharing is caring!