মুলাদীতে ইউনিয়ন ছাত্রলীগ কার্যালয়ে উপজেলা ছাত্রলীগের তালা

প্রকাশিত: ১:০৫ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১৩, ২০২০

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বরিশালের মুলাদীতে মাদক ও জুয়ার আসর বসানো ইউনিয়ন ছাত্রলীগ কার্যালয় বন্ধ করে দিয়েছে উপজেলা ছাত্রলীগ। স্থানীয়দের অভিযোগ এবং উপজেলা চেয়ারম্যানের নির্দেশে কার্যালয়টি বন্ধ করে দেয়া হয়েছে বলে দাবি ছাত্রলীগ সভাপতির। গত মঙ্গলবার বিকালে মুলাদীর গাছুয়া ইউনিয়নে এই ঘটনা ঘটে।

তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে মুলাদী উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. জুবায়ের আহমেদ জুয়েল জানান, ‘গাছুয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কার্যালয়টি আমরাই উদ্বোধন করেছিলাম। কিন্তু পরবর্তীতে শুনতে পাই ওই কার্যালয়ের মধ্যে সাংগঠনিক কার্যক্রমের পরিবর্তে সেখানে গভীর রাত পর্যন্ত জুয়ার আসর বসে। শুধু তাই নয়, কার্যালয়ের মধ্যে মাদক সেবন এমনকি বিক্রি’র অভিযোগও রয়েছে। ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি নজরুল ইসলাম ও তার সহযোগী শিপনসহ কয়েকজন মিলিয়ে ছাত্রলীগের ওই কার্যালয়ের মধ্যে এমন অনৈতিক কার্যক্রম চলে আসছিলো বলে দাবি উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতির।

তিনি আরও বলেন, ‘ছাত্রলীগের ওই কার্যালয়ে অনৈতিক কার্যকলাপের কারণে যুব সমাজ হুমকির মধ্যে পড়েছে। তাই এলাকার মুরব্বিরা এ বিষয়ে মুলাদী উপজেলা চেয়ারম্যান এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তারিকুল হাসান মিঠু খাঁ’র কাছে অভিযোগ দেন। এসময় উপজেলা চেয়ারম্যান আমাকে ডেকে এ বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বলেন। তাদের নির্দেশেই মঙ্গলবার বিকালে ইউনিয়ন ছাত্রলীগের ওই কার্যালয়টির গেটে তালা ঝুলিয়ে দেয়া হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে অভিযুক্ত ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি নজরুল ইসলাম এর ব্যবহৃত মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও নম্বরটি বন্ধ পাওয়া যায়। তবে তার একটি ঘনিষ্ঠ সূত্র জানিয়েছে, যে কার্যালয়টিতে তালা ঝোলানো হয়েছে সেটা রাজনৈতিক কোন কার্যালয় ছিলো না। ওই কার্যালয়টি ছিলো নজরুল ইসলামের ব্যক্তিগত অফিস। রাজনৈতিক কোন্দলের জের ধরে ওই কার্যালয়টিতে তালা ঝুলিয়ে দেয়া হয়েছে। তবে বিষয়টি সম্পর্কে বক্তব্য জানতে উপজেলা চেয়ারম্যান তারিকুল হাসান মিঠু খাঁকে একাধিকবার ফোন করা সত্ত্বেও তিনি রিসিভ করেননি।

তবে ছাত্রলীগ কার্যালয়ে তালা দেয়ার কোন ঘটনা জানা নেই বলে দাবি করেছেন মুলাদী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. ফয়েজ আহমেদ। তিনি বলেন, ‘ছাত্রলীগের ওই কার্যালয়ে জুয়া কিংবা মাদকের আসর বসতো কিনা সেবিষয়ে আমাদের কাছে কোন তথ্য নেই। উপজেলা ছাত্রলীগ কার্যালয়টি বন্ধ করে দিলেও আমাদের জানায় নি। এটি তাদের রাজনৈতিক অভ্যন্তরীণ ব্যাপার হতে পারে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

Sharing is caring!