মামলা দায়েরের ২৩ বছর পর চাঁদাবাজ গ্রেফতার

প্রকাশিত: ১১:৫৩ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৫, ২০২১

স্টাফ রিপোর্টার ॥ চাঁদাবাজি ও কুপিয়ে জখমের মামলার পলাতক আসামীকে দীর্ঘ ২৩ বছর পরে গ্রেফতার করেছে মহানগরীর কাউনিয়া থানা পুলিশ। গ্রেফতার হওয়া চাঁদাবাজ রতন শীল কাউনিয়া প্রধান সড়ক এলাকার নারায়ন শীলের ছেলে। গত ১১ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় বরিশাল বিশ^বিদ্যালয় এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ জানিয়েছে, ‘১৯৯৮ সালে নগরীর ঝাউতলা এলাকার মকসেদ কাজীর ছেলে কাজী পলাশকে হাসপাতাল রোডস্থ ইম্পেরিয়াল স্টীল দোকানে চাঁদা না পেয়ে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেন রতন শীল। এই ঘটনায় কোতয়ালী মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন কাজী পলাশ।

মামলা দায়েরের পর থেকেই আত্মগোপনে ছিলেন রতন। তিনি পালিয়ে থেকে বিভিন্ন জায়গায় গা ঢাকা দিয়ে মাদক বেচা-কেনাসহ নানান অপরাধ সংঘটিত করে আসছিলেন। তাকে গ্রেফতারে ডিজিটাল প্রযুক্তিসহ বিভিন্ন কর্মকৌশল নিয়ে মাঠে নামে কাউনিয়া থানা পুলিশ।

এর প্রেক্ষিতে গত ১১ ফেব্রুয়ারি কাউনিয়া থানা জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার মো. মাসুদ রানার নেতৃত্বে থানা পুলিশের একটি চৌকস টিম বরিশাল বিশ^বিদ্যালয় এলাকায় অভিযান চালিয়ে রতন শীলকে গ্রেফতার করে। পরে যথাযথ প্রক্রিয়ায় রতনকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।