মানবিকতার উচ্চতর স্থানে বরগুনার পুলিশ সুপার জাহাঙ্গীর মল্লিক

প্রকাশিত: ৮:৪০ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২১

তরিকুল ইসলাম রতন, স্টাফ রিপোর্টার ॥ বরগুনায় সদ্য যোগদানকৃত পুলিশ সুপার জাহাঙ্গীর মল্লিক ইতিমধ্যে মানবিক পুলিশ হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছেন। কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাসের মধ্যেও তিনি দিন রাত কাজ করে যাচ্ছেন। তার এই কার্যক্রম জেলার কর্মরত গণমাধ্যমকর্মীরা যেমন প্রচার করেছেন সামাজিক মাধ্যমে তেমনি জেলার পুলিশ বিষয়গুলো তুলে ধরায় বরগুনাবাসী তাকে স্বাগত জানিয়েছেন।

বরগুনাবাসী মনে করছেন, করোনা ভাইরাসকালীন সরকারের দেওয়া দায়িত্ব, সামাজিক দায়বদ্ধতায় নিজের নিরাপত্তা বজায় রেখে তিনি যে ভাবে ক্লান্তিহীন কাজ করেছেন তা প্রসংশনীয়। ব্যক্তিত্ব ও কাজের মাধ্যমে নিজেকে তিনি নিয়ে গেছেন মানবিকতার চরমস্থানে।

 

পুলিশ সদস্যদের নিরাপত্তার জন্য প্রতিটি থানা ও পুলিশ ইউনিট সমূহে পর্যাপ্ত মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, পিপিই, ফেইস শিল্ড, গ্লাভস সরবরাহ নিশ্চিত করেছেন। জেলা পুলিশের সদস্যরা যেন শারীরিক ও মানসিকভাবে নিরাপদ বোধ করেন এবং নিজেদের ওপর অর্পিত দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করতে পারেন সে লক্ষ্যেই সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ করেন তিনি।

 

তাছাড়া অপরাধ দমন ও অপরাধীদের আইনের আওতায় আনাসহ নারীর প্রতি যে কোন ধরনের সহিংসতা রোধে বরগুনা জেলা পুলিশ আপোষহীন মর্মে সুযোগ্য পুলিশ সুপার তাঁর বক্তব্যে উল্লেখ করেন, জনগণের পাশে ছিলাম, আছি এবং থাকব। তাতে যত বড় দুর্যোগ কিংবা মহামারি আসুক না কেন। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার পাশাপাশি করোনায় বিপর্যস্ত মানুষের পাশে থেকে স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিৎ করতে আমরা পুলিশ বিভাগ সর্বদা সচেষ্ট থাকব, ইতিপূর্বে করোনা ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য সকলকে উদ্বুদ্ধ করার জন্য কাজ করেছে বরগুনা জেলা পুলিশ এবং এই ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে। এছাড়াও জেলার প্রতিটি উপজেলার, প্রতিটি ইউনিয়নে বিট পুলিশিং কার্যক্রম আরো গতিশীল করার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছি আমরা। মাদককে নিয়ে এসেছি জিরো টলারেন্সে, আর এগুলো সম্ভব হয়েছে বিভাগীয় ডিআইজি শফিকুল ইসলাম এর দিক নির্দেশনায়।
অপরাধ ও মাদক মুক্ত আদর্শ বরগুনা গড়ার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন সুযোগ্য পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর মল্লিক।

 

সদ্য যোগদানকৃত পুলিশ সুপার মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর মল্লিক এর কাছে বরগুনা সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এখানকার মানুষ সহজ- সরল। এখানের পরিবেশ খুবই ভালো কিন্তু এখানকার কিছু মানুষ আছে যারা জোয়ার- ভাটার মতোন। কিছু মানুষ আছে কাদা মাটিও বটে। তারা খানিক ভালো খানিক মন্দ।