মহাসড়কের পাশে ময়লা আবর্জনা স্তূপ : অতিষ্ঠ এলাকাবাসী

প্রকাশিত: ১১:১০ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৩, ২০২০

তানিম হাসান ইমন ও জুনাইদ খন্দকার ॥

নগরীর ২৪ নং ওয়ার্ড রুপাতলী-সাগরদী মহাসড়কের পাশেই সিটি কর্পোরেশনের অন্থায়ী ভাগাড়ে আবর্জনা স্তূপের কারণে অতিষ্ঠ এলাকাবাসী। দুর্গন্ধে প্রতিনিয়ত দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে স্থানীয়দের। তাদের অভিযোগ নগরীর ২৪ ও ২৫ নং ওয়ার্ডের বাসাবাড়ির আবর্জনা এনে ২৪ নং ওয়ার্ডের গাউছিয়া সড়কের সামনে রাস্তার পাশে স্তূপ করে রাখা হয়। এতে করে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে পথচারী ও স্থানীয় বাসিন্দাদের।

আবর্জনার দুর্গন্ধে নাকে রুমাল, টিস্যু চেপে রাস্তা পার হতে হয় পথচারীদের। ওই এলাকার ভুক্তভোগী দোকানি সোহেল জানান, দোকানের সামনে ময়লা আবর্জনার স্তূপ থাকায় প্রতিনিয়ত দুর্গন্ধে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছি। আবর্জনার স্তূপ থাকায় দোকানের গ্রাহক কমে গেছে। এই অবস্থা চলতে থাকলে বাধ্য হয়ে দোকান অন্যত্র সরিয়ে নিতে হবে।

অপর এক দোকানি জানান, দোকানের সামনে ভাগাড় থাকা সত্ত্বেও আবর্জনা ছড়িয়ে ছিটিয়ে ফেলে রেখে যায়। সিটি কর্পোরেশনের পরিচ্ছন্ন কর্মীদেরকে নির্দিষ্ট স্থানে আবর্জনা ফেলতে বলা হলেও তারা আমাদের কথায় কর্ণপাত করছেন না। তারা এ বিষয়ে সিটি কর্পোরেশনে অভিযোগ দিতে বলেন।

এ বিষয়ে জানতে ২৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আনিছুর রহমান শরীফের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, সিটি কর্পোরেশন পক্ষ থেকে আবর্জনা ফেলার নির্দিষ্ট স্থান তৈরী করে দিলেও রাস্তার দুই পাশের বাসিন্দারা নির্দিষ্ট স্থানে আবর্জনা ফেলছেন না।

বিষয়টি নিয়ে তাদের সাথে সমঝোতা বৈঠক করা হলেও কেউই মানতে রাজি হননি। তারা একে অপরকে দোষারোপ করছেন। পরবর্তীতে সিটি কর্পোরেশন থেকে এই বিষয়ে পদক্ষেপ নেয়ার কথা রয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে বিসিসির পরিচ্ছন্ন শাখার প্রধান রবিউল ইসলামকে একাধিকবার ফোন দেয়া হলেও সেটি বন্ধ পাওয়া যায়।

Sharing is caring!