মঠবাড়িয়ায় ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে মারামারিতে যুবলীগ নেতাসহ আহত-৩


Deprecated: get_the_author_ID is deprecated since version 2.8.0! Use get_the_author_meta('ID') instead. in /home/ajkerbarta/public_html/wp-includes/functions.php on line 4861
প্রকাশিত: ১০:১৬ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৩, ২০২০

ইউপি চেয়ারম্যানকে আসামী করে মামলা

মঠবাড়িয়া সংবাদদাতা ॥ পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার পূর্ব সাপলেজা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে হামলায় উপজেলা যুবলীগ সহ-সভাপতি আবুল কালাম মোল্লাসহ ৩জন আহত হওয়ার ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। রোববার রাতে আহত ইউনিয়ন ছাত্রলীগ নেতা জাহিদ এর বাবা নজরুল ইসলাম বাদি হয়ে সাপলেজা ইউপি চেয়ারম্যান মিরাজ মিয়াসহ ৭জন নামীয় ও অজ্ঞাত আরও ১০/১২ জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলা সুত্রে জানা গেছে, আসামীদের সাথে আহতদের এলাকায় প্রভাব বিস্তার নিয়ে পূর্ব বিরোধ ছিল। তারই ধারাবাহিকতায় গত বৃহস্পতিবার ৩০ জুলাই বিকেলে পূর্ব সাপলেজো মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে কথার কাটাকাটির এক পর্যায় হাতাহাতি হয়। পরে খেলা শেষে সন্ধ্যার পর উভয় পক্ষের মধ্যে পুনরায় ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়। এ সময় উপজেলা যুবলীগ সহ-সভাপতি আবুল কালাম মোল্লা ও ইউনিয়ন ছাত্রলীগ নেতা জাহিদ উভয় পক্ষের বিরোধ সমাধানের জন্য ঘটনাস্থলে পৌঁছলে প্রতিপক্ষরা তাদের ওপর হামলা চালিয়ে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে যুবলীগ নেতা কালাম মোল্লা, ছাত্রলীগ নেতা জাহিদ ও রিয়াজ মোল্লাকে গুরুতর আহত করে।

পরে স্থানীয়রা আহতদের উ্দ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পরে কর্তব্যরত চিকিৎসক আহতদের উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

এ বিষয়ে সাপলেজা ইউপি চেয়ারম্যান মিরাজ মিয়া জানান, এ ঘটনার সাথে আমি জড়িত নই, রাজনৈতিক ভাবে হেয় করার জন্য উদ্দেশ্য প্রণোদিত ভাবে এ মামলায় আমাকে জড়ানো হয়েছে।

মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ আ.জ.ম. মাসুদুজ্জামান মিলু মামলার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ বিষয়ে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে