মঠবাড়িয়ায় প্রতিপক্ষের হামলায় কলেজ ছাত্র হাসপাতালে

প্রকাশিত: ৬:০২ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২১, ২০২০

 মো. শাহজাহান, মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি ::

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলায় মো. সাকিব নামে কলেজ পড়ুয়া এক ছাত্রকে উপর্যুপরি কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে হাসপাতালে পাঠিয়েছে প্রতিপক্ষ দুর্বৃত্তরা। আহত ওই কলেজ ছাত্র উপজেলার ধানিসাফা ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ড পশ্চিম ফুলঝুরি গ্রামের নূর ইসলাম হাওলাদার এর পুত্র। অন্যদিকে প্রতিপক্ষ শিহাব উদ্দিন ওই একই এলাকার মৃত চান মিয়া হাওলাদার এর পুত্র। ১৯ সেপ্টেম্বর সকালের এ ঘটনায় উভয় পক্ষ থানায় অভিযোগ ও পাল্টা অভিযোগ দিয়েছে।

সরেজমিনে জানা গেছে, স্থানীয় নূর ইসলাম গং ও শিহাব উদ্দিন গংদের সঙ্গে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ চলছে। মামলা মোকদ্দমা চলমান আছে। উভয় পক্ষের দীর্ঘদিনের বিরোধে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছেন। বিশেষ করে শিহাব উদ্দিন গং সালিস ব্যবস্থা অমান্য করায় বিরোধ নিষ্পত্তিতে এখন আর কেউ এগিয়ে আসছেন না। এ সুযোগে শিহাব উদ্দিন গং এলাকায় ‘জোর যার মুল্লুক তার’ রাজত্ব কায়েম করতে বসেছে।

সৌদী প্রবাসী আবু জাফর এর বাড়ির প্লট সংলগ্ন নূর ইসলাম হাওলাদার এর ৮ শতাংশ জমি নিয়ে বিরোধের সূত্রপাত। আবু জাফর উক্ত জমি ক্রয় করতে ব্যর্থ হয়ে শিহাব উদ্দিনকে দিয়ে জোরপূর্বক দখল করতে গিয়ে নূর ইসলাম গংদের বাধার সম্মুখীন হন। একপর্যায়ে নূর ইসলামের পুত্র সাকিবকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে রাস্তায় ফেলে রাখে দুর্বৃত্তরা। সাকিব বর্তমানে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

শিহাব উদ্দিন এর আগে ২৬ মে (২০২০) তুচ্ছ বিষয় নিয়ে প্রতিবেশী আবু জাফর হৃদয়কে রামদা দিয়ে কুপিয়ে জখম করেন। রহিম নামে এক লোক ছাড়াতে আসলে তাকেও কুপিয়ে রাস্তায় ফেলে রাখেন। জখমীর হাতে ১০টি সেলাই করার দাগ এখনও আছে।

একাধিক মামলার আসামি শিহাব উদ্দিন এর বিরুদ্ধে কথা বলায় স্থানীয় আব্দুর রহমানকে লোহার পাইপ দিয়ে পিটিয়ে হাত ভেঙে ফেলেন। বর্তমানে ওই দিনমজুর পঙ্গু হয়ে অসহায় দিনযাপন করছেন। পঙ্গু ভাতার জন্য জনপ্রতিনিধিদের দ্বারেদ্বারে ঘুরছেন।

শিহাব এর হাত থেকে রক্ষা পাননি ৭৫ বছরের রিজিয়া বেগমও। দুর্বৃত্তের ঘুষিতে একটি চোখ নষ্ট হওয়ার উপক্রম হয়। উন্নত চিকিৎসা নিয়ে তিনি এখন কিছুটা সুস্থ।
স্থানীয় ফজলুল হক মোল্লার পুত্র কাইয়ুম ইসলাম হিমু (১৬)। এসএসসিতে জিপিএ-৫ পাওয়া মেধাবী ছাত্র হিমুকে তুচ্ছ বিষয় নিয়ে চোখ উৎপাটনের চেষ্টা চালান শিহাব। হিমুর ডাক চিৎকার ও বুকফাটা আর্তনাদে এলাকাবাসী ও স্বজনরা এগিয়ে আসলে ওই দুর্বৃত্তের হাত থেকে রক্ষা পায় হিমু। এতে স্থানীয় সালিসীতে শিহাবকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

এলাকার আবু সায়েদ মোল্লা, সালাম মোল্লা, মোতালেব মোল্লা, শাহ আলম মোল্লা, জাকির হোসেন হোসেন ও মোঃ হাকিম গংদের জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে হয়রানির অভিযোগ রয়েছে শিহাব উদ্দিন গংদের বিরুদ্ধে।

স্থানীয়রা জানান, শিহাব উদ্দিন রামদা নিয়ে এলাকায় মহড়া দেওয়ায় তার বিরুদ্ধে কেউ মুখ খোলার সাহস পান না। মুখ খুললেই শুরু হয় নির্যাতন। ফাঁসানো হয় মিথ্যা মামলায়।

কলেজ ছাত্রকে কুপিয়ে জখম করার ঘটনায় মঠবাড়িয়া থানার ওসি তদন্ত) আঃ হক জানান, এ ঘটনায় উভয় পক্ষের ২টি মামলা রুজু করা হয়েছে। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আসামী গ্রেফতার করবেন।

Sharing is caring!