মঠবাড়িয়ায় পূর্ব বিরোধের জেরে কলেজ ছাত্রের কব্জি কর্তন

প্রকাশিত: ১২:২০ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১৯, ২০২০

মিজানুর রহমান মিজু, মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) সংবাদদাতা ॥

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া পৌরশহরে মঙ্গলবার রাতে পূর্ব বিরোধ ও মোবাইল চুরিকে কেন্দ্র করে শুভ শীল (২০) নামক এক কলেজ ছাত্রের ডান হাত কেটে বিচ্ছিন্ন করেছে সন্ত্রাসীরা। সঙ্কটজনক অবস্থায় শুভকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তির পর গুরুতর অবস্থায় বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। শুভ পৌর শহরের ৩নং ওয়ার্ড দক্ষিণ মিঠাখালী গ্রামের শ্যামল চন্দ্র শীল ওরফে কালাচাদের পুত্র ও মঠবাড়িয়া সরকারী কলেজের এইচ এস সি পরীক্ষার্থী।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান- রাত সাড়ে আটটার দিকে শুভ হাসপাতালের ব্রীজের ওপারে দোকানে বসে গল্প করছিল। এসময় পূর্ব বিরোধের জের ধরে স্থানীয় কোরবান, তানভির মল্লিক, নাইম ও সাদির নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে শুভ’র ডান হাত বিচ্ছিন্ন করে উল্লাস করে।
ঘটনার পর খবর পেয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান রিয়াজ উদ্দিন আহম্মেদ হাসপাতালে ছুটে যান এবং জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবী জানান।

এদিকে হামলার প্রতিবাদে বিক্ষুব্ধ যুবকরা পৌর শহরে বিক্ষোভ মিছিল করেন। পৌর মেয়রের বাসবভনে ইট পাটকেল নিক্ষেপ এবং তার ব্যবহৃত প্রাইভেটকার ভাংচুরের চেষ্টাও করেন তারা। পৌর মেয়র রফিউদ্দিন আহম্মেদ ফেরদৌস এঘটনার নিন্দা জানিয়ে বলেন, একটি পাড়ার ছাত্রলীগ কর্মীর ওপর হামলার ঘটনায় আমার বাসায় মিছিল দিয়ে ইট পাটকেল নিক্ষেপ, গাড়ীতে হামলা করা, শান্ত মঠবাড়িয়াকে অশান্ত করার চেষ্টা চালাচ্ছে একটি মহল।

এ ঘটনার পর পরই পৌরশহরে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। সকল প্রকার সহিংসতা এড়াতে পৌরশহরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ আ.জ.ম মাসুদ্দুজ্জামান মিলু জানান, একটি মোবাইল চুরিকে কেন্দ্র করে এ ঘটনাটি ঘটেছে। এ ব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

Sharing is caring!