মঠবাড়িয়ায় ধর্ষক পিতা গ্রেপ্তার : পুরস্কার পেলেন এসআই মানিক

প্রকাশিত: ৩:২৪ অপরাহ্ণ, জুলাই ৩০, ২০২০

মো. শাহজাহান, মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি ॥ পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া থানার বহুল আলোচিত মামলার আসামী ধর্ষক পিতাকে গ্রেপ্তারে সফলতার জন্য পুরস্কৃত করা হয়েছে এসআই মানিককে। পিরোজপুর জেলা পুলিশ সুপার মঠবাড়িয়া থানার ওসির মাধ্যমে এ পুরস্কার প্রদান করেন।

মঙ্গলবার (২৮ জুলাই) সকাল ১০ টায় এসআই মানিকের হাতে পুরস্কার তুলে দেন ওসি মাসুদুজ্জামান। এ সময় ওসি বলেন, এসআই মানিক স্বল্প সময়ে নারী ও শিশু নির্যাতন মামলার আসামী ধর্ষক পিতাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করেছেন। এ দায়িত্বশীল ভূমিকার স্বীকৃতিস্বরূপ তাকে পুরস্কৃত করা হলো।

উপজেলার ঘোপখালী গ্রামে সেলিম বেপারী (৫০) নামে এক লম্পট পিতা মেয়েকে গার্মেন্টস এ ভর্তি করার কথা বলে চট্টগ্রামে গিয়ে ঘর ভাড়া নিয়ে ২ মাস অবস্থান করে গ্রামের বাড়িতে চলে আসেন। পিতার অত্যাচারে ওই মেয়ে চট্টগ্রামে থাকাকালীন আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিল বলে জানা গেছে।
নিজের অনৈতিক কাজ ঢাকতে একপর্যায়ে তড়িঘড়ি করে বিবাহ দেন মেয়েকে। কিন্তু বিবাহের পরও লম্পট পিতা ইচ্ছার বিরুদ্ধে অনৈতিক কাজ করায় মেয়ে বিষয়টি স্বজনদের কাছে ফাঁস করে দেয়। এতে নরপিশাচ পিতা ক্ষিপ্ত হয়ে মেয়েকে হত্যার চেষ্টা চালান। কিন্তু স্থানীয়দের সহযোগিতায় মেয়েটি কৌশলে কোন রকম জীবনে বেঁচে যায়।

এ ঘটনায় মঠবাড়িয়া থানায় মামলা দায়ের হওয়ার পর থেকে আসামী পলাতক ছিলেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই মানিক গোপন তথ্যের ভিত্তিতে ও প্রযুক্তি ব্যবহার করে ঢাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হন। আসামী ১৬৪ ধারার জবানবন্দিতে অপরাধ স্বীকার করেছেন বলে নিশ্চিত করেছেন তদন্ত কর্মকর্তা। গ্রেফতারকৃত আসামীকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

Sharing is caring!