মঠবাড়িয়ায় অবৈধ স্থাপনা অপসারণে সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতার স্ট্যাটাস ভাইরাল

প্রকাশিত: ৫:০৭ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২২, ২০২০

মো. শাহজাহান, মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি ::

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় বহুল আলোচিত মৎস্য বাজার সংলগ্ন ফুটপাত দখল করে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করায় ক্ষুব্ধ হয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জনস্বার্থে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতা আশরাফুর রহমান। ২১ সেপ্টেম্বর নিজ ফেসবুক আইডিতে দেওয়া স্ট্যাটাসটি মুহূর্তের মধ্যেই সর্বত্র ছড়িয়ে পড়ে।

ইতোপূর্বে স্থানীয় সাংসদ ডাঃ রুস্তম আলী ফরাজী ওই অবৈধ স্থাপনা অপসারণের জন্য ভূমি মন্ত্রণালয়ে ডিও লেটার প্রদান করেন। উক্ত লেটারের প্রেক্ষিতে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের অগ্রগামীর ভিত্তিতে জেলা প্রশাসক আবু আলী মো. সাজ্জাদ হোসেন অবৈধ স্থাপনা অপসারণ সংক্রান্ত স্থান পরিদর্শন করেন।

ওইদিন যারা অবৈধ স্থাপনা অপসারণ না করার পক্ষে অবস্থান নেন তারা হলেন-আওয়ামীলীগ নেতা রফিউদ্দিন আহমেদ ফেরদৌস, আজিজুল হক সেলিম মাতুব্বর, শাকিল আহমেদ নওরোজ, ছাত্রলীগ নেতা প্রিন্স প্রমুখ। অন্যদিকে স্থাপনা অপসারণের দাবি জানান বীর মুক্তিযোদ্ধা এমাদুল হক খান, বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট মজিবর রহমান মুন্সী, সাংবাদিক মজিবুর রহমান, সাংবাদিক হারুন অর রশীদ, কামরুল আকন, ফারক হোসেন প্রমুখ।

সম্প্রতি সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান, আওয়ামীলীগ নেতা আশরাফুর রহমান একটি স্ট্যাটাস দেওয়ায় ভূমিদস্যুরা আরও আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে। স্ট্যাটাসটি হুবহু তুলে ধরা হলো-

প্রিয় মঠবাড়িয়াবাসী,
মঠবাড়িয়া পৌর শহরের প্রাণকেন্দ্রে নির্মাণলাধীন ফিস মার্কেটকে ঘিরে ফুটপাত দখল করে অবৈধ স্থাপনা অপসারণে টালবাহানা আমরা গভীর উদ্বেগের সাথে লক্ষ করছি। উক্ত অবৈধ স্থাপনা শুধু মঠবাড়িয়াবাসীর চলাচলকেই বিঘিœত করবে না বরং চলাচলকে করবে ঝুঁকিপূর্ণ। মঠবাড়িয়ায় ভূমিদস্যুদের পদচারণা আমরা লক্ষ করছি যুগ যুগ ধরে। বিগত মেয়াদে আমি উপজেলা চেয়ারম্যান থাকাকালীন সকল চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে ভূমিদস্যুতা অনেকাংশে রোধ করতে পেরেছিলাম বলে মঠবাড়িয়াবাসী আমার সাথে একমত পোষণ করবেন। সেই চিরচেনা ভূমিদস্যুদের ছোবলকে আবারও আপনাদের সাথে নিয়ে রুখে দিতে চাই। অবৈধ স্থাপনা অপসারণে আপনাদের সহযোগিতা প্রত্যাশা করছি।

Sharing is caring!