ভয়াবহ! ভাড়া না থাকায় বাস থেকে ছুড়ে ফেলা হলো প্রতিবন্ধী নারীকে!


Deprecated: get_the_author_ID is deprecated since version 2.8.0! Use get_the_author_meta('ID') instead. in /home/ajkerbarta/public_html/wp-includes/functions.php on line 4861
প্রকাশিত: ৭:৫০ অপরাহ্ণ, মার্চ ৮, ২০২১
বার্তা ডেস্ক ‍॥
নারী দিবসের আগের দিন ভয়ানক একটা ঘটনা ঘটেছে রাজধানীর কেরানীগঞ্জে। ভাড়া দিতে ব্যর্থ হওয়ায় প্রতিবন্ধী এক নারীকে চলন্ত বাস থেকে ছুড়ে ফেলে দিয়েছে ‘এন মল্লিক’ কম্পানির বাসের হেল্পার। সেই নারীকে ছুড়ে ফেলার ভিডিও সোশ্যাল সাইটে ভাইরাল হয়ে গেছে। এন মল্লিক বাসটি গুলিস্তান-নবাবগঞ্জ রুটে চলাচল করে। ভিডিওতে দেখা যায়, গত রবিবার সকাল পৌনে ৯টার দিকে এন মল্লিক নামের একটি বাস থেকে ছুড়ে ফেলা হয় বোরকা পরা ওই নারীকে। গাড়ির নম্বর ঢাকা মেট্রো ব-১৩-১৫২১। মাটিতে ছুড়ে ফেলে দেওয়া ওই নারী বাকপ্রতিবন্ধী। তিনি মাটিতে পরে প্রচ- ব্যথায় গোঙাচ্ছিলেন। সাথে সাথে উপস্থিত স্থানীয়রা তাকে রাস্তা থেকে তোলেন। বাকপ্রতিবন্ধী হওয়ায় ওই নারী টাইলসের ওপর লিখে তাকে ছুড়ে ফেলে দেওয়ার কারণ সম্পর্কে উপস্থিত জনতাকে জানান। এরপর প্রচ- ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে জনতা। ওই নারী লিখেছেন, ‘এন মল্লিক কোনাখোলা থেকে উঠাইছে। ভাড়া নাই। এন মল্লিক কোনো দিনও আমার থেকে ভাড়া নেয় না। এরা ভাড়া চায়। দিতে না পারায় এমুন ব্যবহার। এন মল্লিকের সবাই আমাকে চেনে। ও মনে হয় চিনে নাই। তাই বুজাবার চেষ্টা করছিলাম’। জানা গেছে, নারীকে ছুড়ে ফেলা ‘এন মল্লিক’ কম্পানির বাসের হেল্পারের নাম হাসান (২২)। তার বাড়ি নবাবগঞ্জের জয়কৃষ্ণ এলাকায়। বাসটির চালক ছিলেন সবুজ মিয়া (৪০)। একজন প্রতিবন্ধীর সঙ্গে এমন আচরণে অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার এবং বিচার দাবি করেছেন স্থানীয় জনতা।