ভোলা প্রেসক্লাবের কমিটির কার্যক্রম বন্ধ করলেন আদালত! জবাব চেয়ে রুল জারি

প্রকাশিত: ১১:০৮ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২১, ২০২১

মোঃ বিল্লাল হোসেন,ভোলা প্রতিনিধি ॥ ভোলা প্রেস ক্লাবের অবৈধ কমিটির সকল কার্যক্রমের উপর নিষেধাজ্ঞা এবং জবাব চেয়ে রুল জারি করেছেন আদালত। বৃহস্পতিবার ভোলা সদর সিনিয়র সহকারী জজ আদালতের বিচারক নাছিম মাহামুদ এই আদেশ প্রদান করেন। একই সাথে মামলার বিবাদিগণকে বিভিন্ন পদে ঘোষণা করা কেন অবৈধ হবেনা এবং নিষেধাজ্ঞার আদেশ দ্বারা কেন বাতিল করা হবেনা তৎমর্মে অত্র নোটিশ প্রাপ্তির ৩০ দিনের মধ্যে কারণ দর্শানোর নির্দেশও প্রদান করা হয়েছে। অত্র মামলার পূর্ণাঙ্গ শুনানি না হওয়া পর্যন্ত বিরোধীয় নব নির্বাচিত কমিটি ভোলা প্রেস ক্লাবে কোন অনুষ্ঠান না করে কিংবা কোন কার্যক্রম গ্রহণ না করে বা সিদ্ধান্ত গ্রহণ না করে তার জন্য অন্তর্বর্তীকালীন স্থিতিবস্থা বজায় রাখারও নির্দেশ প্রদান করেন। উল্লেখ্য, গত ১৯ জানুয়ারি (২০২১) ভোলা প্রেস ক্লাবের নির্বাচন বাতিল, নতুন ভোটার তালিকা করে পুন:নির্বাচন, বর্তমান কমিটির কার্যক্রমকে অবৈধ ঘোষণা চেয়ে মামলা করেছেন সংক্ষুব্ধ ৬ জন সাংবাদিক। মামলা নং দে-৩০/২১।

 

বিচারক মামলাটি গ্রহণ করে আদেশের জন্য বৃহস্পতিবার দিন ধার্য রেখে উল্লেখিত নির্দেশ প্রদান করেন। মামলার আরজিতে বলা হয়, ভোলা প্রেস ক্লাবের সদ্য অনুষ্ঠিত নির্বাচনে নির্বাচন পরিচালনা কমিটি ভোলা প্রেসক্লাবের গঠনতন্ত্র মোতাবেক নির্বাচন অনুষ্ঠান না করে নিজেদের মনগড়া কিছু বিধি-নিষেধ জারি করে অবৈধ নির্বাচনের আয়োজন করেন। নির্বাচনী তফসিল বিজ্ঞপ্তিতে চূড়ান্ত ভোটারগণ প্রার্থী হতে পারবেন উল্লেখ থাকলেও নির্বাচন পরিচালনা কমিটি তাদের পছন্দের প্রার্থীদের বিজয়ী করার জন্য কোন কারণ উল্লেখ না করেই ১৩ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল করেন। এই মামলায় নির্বাচন পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান মো:মোশারেফ হোসেন সহ ৩ জন এবং প্রেস ক্লাব কমিটির সভাপতি এম হাবিবুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক অমিতাভ রায় অপু সহ সর্বমোট ১৪ জনকে বিবাদী করা হয়।

 

বাদী পক্ষে শুনানি করেন এডভোকেট ড. আমিরুল ইসলাম বাছেত, এডভোকেট খাইরুল ইসলাম, এডভোকেট সাহাদাত হোসেন শাহিন, এডভোকেট ফয়সাল আহমেদ রাসেল, এডভোকেট কামাল উদ্দিন সুলতান প্রমুখ। ভোলা প্রেস ক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও সভাপতি প্রার্থী সামস-উল আলম মিঠু, সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী মো: ওমর ফারুক, সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী আল আমিন শাহরিয়ার, যুগ্ম-সম্পাদক প্রার্থী শিমুল চৌধুরী, দপ্তর সম্পাদক প্রার্থী মো: মিজানুর রহমান ও অর্থ সম্পাদক প্রার্থী মো: ইউনুছ শরীফ বাদী হয়ে এই মামলা দায়ের করেন।