ভোলায় প্রতিবন্ধী পরিবারের উপর হামলা, রেহাই পায়নি ১০ মাসের শিশুও

প্রকাশিত: ৮:৪৩ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৪, ২০২০

গজনবী, দৌলতখান প্রতিনিধি ॥

ভোলায় প্রতিবন্ধী পরিবারের উপর হামলায় শারীরিক প্রতিবন্ধী বৃদ্ধা সহ একই পরিবারের ৬ জন আহত হবার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বর্বরোচিত ঐ হামলার হাত থেকে রক্ষা পাননি শারীরিক প্রতিবন্ধী ফরমুজল (৬৫) ও তার ১০ মাসের নাতি ওমরও।

ঘটনাটি ঘটেছে বোরহানউদ্দিন উপজেলার মাইনকা ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের আদর্শ বাজার সংলগ্ন এলাকায়। আহতরা হচ্ছেন শারীরিক প্রতিবন্ধী ফরমুজল (৬৫), তাসলিমা (৫০), রাজিব (১৮), উম্মে হাবিবা (২৫), ওসমান (১০ মাস), হাফেজ মাহামুদুল্লাহ (৫৫)। এদের মধ্যে ফরমুজল, তাসলিমা ও রাজিব গুরুতর আহত অবস্থায় দৌলতখান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। অন্যরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

দৌলতখান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শারীরিক প্রতিবন্ধী ফরমুজল জানান, শুক্রবার সকালে নিরব এর নেতৃত্বে ১০-১২ জন সন্ত্রাসী সঙ্গবদ্ধ হয়ে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে লঠিসোটা নিয়ে আমাদের উপর সন্ত্রাসী কায়দায় হামলা চালিয়ে পরিবারের ৬ সদস্যকে গুরুতর জখম করে। তাদের নির্মম হামলার হাত থেকে আমার ১০ মাসের নাতিও রক্ষা পায়নি। এসময় হামলাকারীরা আমার মেয়ে উম্মে হাবিবাকে মারধর করে তার সঙ্গে থাকা স্বর্ণালংকার নিয়ে যায়। স্থানীয়রা আমাদেরকে হামলাকারীদের হাত থেকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে দৌলতখান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এনে ভর্তি করায়।

সরেজমিনে গেলে স্থানীয়রা জানান, গত ২০ বছরে অত্র এলাকায় এরকম নির্মম হামলার ঘটনা ঘটেনি। নিরব গং এলাকার দুষ্ট প্রকৃতির লোক। এর পূর্বেও নীরবের নেতৃত্বে এ ধরনের একাধিক ঘটনা ঘটেছে। পঙ্গু মোয়াজ্জেমের পরিবারটি অনেক অসহায়। তারা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে ঘটনার সাথে জড়িতদের উপযুক্ত বিচারের দাবী জানান।

Sharing is caring!