ভাবির সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় দেখায় স্ত্রীকে হত্যা!

প্রকাশিত: 5:17 PM, January 12, 2020

বাগেরহাটের মোল্লাহাটে বিয়ের চার মাসের মাথায় ডনি আক্তার মিম (১৮) নামের এক গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামী সাহাদাত সেখের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় নিহতের মা বাদী হয়ে জামাইসহ তিনজনের নামে হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

গতকাল শনিবার বিকেলে মোল্লাহাটের চাঁদেরহাট গ্রামে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। পুলিশ ওই নববধূর লাশ উদ্ধার করে আজ রোববার বাগেরহাট সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।

নিহত মিমের মা জানান, নিহতের বাবার নাম আনিসুর রহমান। তাদের বাড়ি খুলনার কয়রা থানায়। গত চার মাস আগে মোল্লাহাটের চাঁদেরহাট গ্রামের ধলু সেখের ছেলে সাহাদাত সেখের সঙ্গে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয় মিমের। সাহাদাতের সঙ্গে তার বড় ভাইয়ের স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়া চলছিল বলে মিম তার মাসহ আত্মীয়দের জানান।

মিমের মা জানান, শনিবার দুপুরে মিম বাইরে থেকে বাড়িতে এসে তার স্বামীকে ভাবির সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় দেখে চিৎকার শুরু করেন। একপর্যায়ে তাকে থামাতে স্বামী সাহাদাত ও তার পরিবারের সদস্যরা শ্বাসরোধ করে হত্যা করেন। এ ঘটনার পর সাহাদাত সেখসহ পরিবারের লোকজন পালিয়ে যান। বিকেলে পুলিশ চাঁদেরহাট গ্রামে নববধূ নিহতের খবর পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করে।

মোল্লাহাট থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী গোলাম কবির বলেন, ‘মিমকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে। তবে কী কারণে এ হত্যাকাণ্ড ঘটেছে, তা আসামিদের গ্রেপ্তার করার পর জানা যাবে।’

ওসি কাজী গোলাম কবির জানান, এ ঘটনায় নিহতের স্বামী সাহাদাত সেখ, তার ভাবি ও সাহাদাতের ভগ্নিপতিকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেছে নিহতের মা। অভিযুক্তরা পলাতক রয়েছে। পুলিশ তাদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা করছে

Share Button