ভাইজিকে ধর্ষণ শেষে হত্যার দায়ে চাচার মৃত্যুদন্ড

প্রকাশিত: ১০:০৪ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ২, ২০১৯

মঠবাড়িয়া সংবাদদাতা ॥ পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় আপন ভাইয়ের স্কুল পড়–য়া কিশোরী মেয়েকে ধর্ষণ করে হত্যার দায়ে আদালত আপন চাচা নুর মোহাম্মদ (৬০) কে মৃত্যুদ- ও ১ লাখ টাকা জরিমানার আদেশ দিয়েছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার পিরোজপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মিজানুর রহমান এই দ-াদেশ প্রদান করেন। দ-প্রাপ্ত আসামি হচ্ছেন উপজেলার নলী তুলাতলা গ্রামের আব্দুর রশিদের ছেলে নুর মোহাম্মদ। আদালত সূত্রে জানা যায়, বিগত ২০১০ সালের ২১ মার্চ আসামি তার আপন ভাইয়ের মেয়ে নবম শ্রেণির ছাত্রী আমেনা (১৪) কে ধর্ষণ করেন। এসময় ভাতিজি ঘটনাটি ফাঁস করে দেয়ার কথা বললে ধারালো কুঠার দিয়ে চাচা তাকে হত্যার পর বাড়ির পাশের একটি খালে ফেলে দেন। পুলিশ লাশ উদ্ধারের পর থানায় মামলা দায়ের করে। পুলিশ ধর্ষণ শেষে হত্যা মামলার আসামি নুর মোহাম্মদকে গ্রেপ্তার করলে তিনি আদালতে দ-বিধির ১৬৪ ধারায় হত্যা ও ধর্ষণের ঘটনায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। এ ঘটনায় পুলিশ আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করার পর দীর্ঘ সাক্ষ্য ও জেরার ভিত্তিতে আসামির বিরুদ্ধে অপরাধ প্রমাণিত হলে বিচারক এ রায় প্রদান করেন। রাষ্ট্রপক্ষে নারী ও শিশু দমন নির্যাতন ট্রাইব্যুনালের পিপি আব্দুর রাজ্জাক খান বাদশা ও আসামির পক্ষে অ্যাড. কানাই লাল বিশ^াস মামলা পরিচালনা করেন।

Sharing is caring!