ব্লেড দিয়ে নিজের গলা কেটে দুই ঘণ্টা রাস্তায় পড়েছিলেন যুবক!

প্রকাশিত: ১১:২৩ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১০, ২০২১

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ব্লেড দিয়ে নিজের গলা কেটে প্রায় দুই ঘণ্টা রক্তাক্ত অবস্থায় রাস্তায় পড়ে ছিলেন ফেরদৌস খান (১৯) নামের এক যুবক। তাকে উদ্ধার করে আশঙ্কাজনক অবস্থায় বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে ভর্তি করেছে থানা পুলিশ। এর আগে গত মঙ্গলবার সকাল ৮টার দিকে বরিশাল সদর উপজেলার টুঙ্গিবাড়িয়া ইউনিয়নের বিশারদ গ্রামের দক্ষিণ জুহুরা খাতুন দাখিল মাদ্রাসা এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। আহত ফেরদৌস ওই গ্রামের হানিফ খানের ছেলে। গত বছর সিংহেরকাঠী মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে তিনি এসএসসি পাস করেন।

 

ফেরদৌসের প্রতিবেশী মো. রেজভী জানান, ফেরদৌস ব্লেড দিয়ে নিজের গলা নিজেই পোচ দিয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় সড়কে পড়ে ছিলেন। দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা বিষয়টি মহানগরীর বন্দর থানায় অবহিত করেন। পরে পুলিশ পুলিশ এসে তাকে উদ্ধার করে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করে। এর দেড় বছর পূর্বে ফেরদৌস একইভাবে ব্লেড দিয়ে নিজের শরীর রক্তাক্ত করেন বলে জানিয়েছেন ওই প্রতিবেশী।

 

বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের বন্দর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আনোয়ার হোসেন তালুকদার বলেন, ‘ ফেরদৌসের মা তার বাবাকে তালাক দিয়ে অন্যত্র বিয়ে করেছেন। তার বাবা ঢাকায় চাকরি করেন। আর ফেরদৌস দাদা বাড়িতে থাকেন। তার মানসিক সমস্যা রয়েছে। সেই সমস্যা থেকেই তিনি এই ঘটনা ঘটিয়েছেন। বর্তমানে তার অবস্থা অনেকটা উন্নতির দিকে।