বেতাগীতে ইউপি চেয়ারম্যানকে কুপিয়ে জখম

প্রকাশিত: ৬:০৫ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২০, ২০২০

তরিকুল ইসলাম রতন, বরগুনা প্রতিনিধি ::

বরগুনার বেতাগী উপজেলার ইমাম হাসান শিপন জোমাদ্দার নামের ইউপি চেয়ারম্যানকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেছে দুর্বৃত্তরা।
শুক্রবার বেলা সাড়ে ৩টার দিকে বেতাগী উপজেলার শরিষামুড়ী ইউনিয়নের কালিকাবাড়ি বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

বেতাগী উপজেলার কালিকাবাড়ি সংলগ্ন একটি বাড়িতে প্রধান অতিথি হিসেবে শুক্রবার দুপুরে দাওয়াত খেতে যান চেয়ারম্যান শিপন জোমাদ্দার। কালিকাবাড়ি বাজারে পৌঁছাতেই ওত পেতে থাকা একদল দুর্বৃত্ত ধারালো দা দিয়ে তাকে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকেন। এতে তার বাম পায়ের হাড় ও ডান পায়ের রগ বিচ্ছিন্ন হয়।
পরে দুর্বৃত্তরা তাকে অঙ্গান অবস্থায় ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। স্থানীয়রা চেয়ারম্যান ইমাম হাসান শিপন জোমাদ্দারকে উদ্ধার করে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন।
চেয়ারম্যানের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।

আহত শিপন জোমাদ্দার বরগুনা জেলা য্বুলীগের যুগ্ম- সাধারণ সম্পাদক ও বেতাগী উপজেলার ৭ নং শরিষামুড়ি ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্বে রয়েছেন।
বরগুনার সার্জারি বিভাগের চিকিৎসক ডা. মো. তারেক হাসান জানান, আহত ইউপি চেয়ারম্যানের অবস্থা গুরুতর। ধারালো অস্ত্রের আঘাতে তার বাম পায়ের হাড় ও ডান পায়ের রগ বিচ্ছিন্ন এবং ডান হাতও মারাত্মক জখম হয়েছে। উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে শিপনকে স্থানান্তর করা হয়েছে বলেও তিনি জানান।

বরগুনা জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক- মোঃ শাহবুদ্দিন শাবু বলেন, এটি একটি ন্যাক্কার জনক ঘটনা। আমি এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ এবং যারা এঘটনার সাথে জড়িত তাদেরকে বিচারের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানাচ্ছি।

বরগুনা জেলা যুবলীগের সভাপতি এ্যাড. কামরুল আহসান মহারাজ বলেন, আমি অত্যন্ত দুঃখ প্রকাশ করছি। যারা চেয়ারম্যান শিপন জোমাদ্দারের উপরে এই হামলা করেছে আমি তাদেরকে কঠিন বিচারের আওতায় আনার জন্যে প্রশাসনের কাছে বিনীতভাবে অনুরোধ করছি।

তিনি আরও বলেন, বরগুনার রাজপথের লড়াকু সৈনিক, জেলা যুবলীগের যুগ্ম-সম্পাদক ও বেতাগী উপজেলার ৭ নং শরিষামুড়ি ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান শিপন জোমাদ্দার। যিনি অন্যায়ের বিরুদ্ধে সব সময় ছিলেন সোচ্চার। যারা চেয়ারম্যানের উপরে এই অতর্কিত হামলা করেছে বরগুনার পুলিশ প্রশাসন তাদেরকে অনতিবিলম্বে গ্রেফতার করে আইনের কাছে সোপর্দ করবে এটা আমার বিশ্বাস।

এ বিষয়ে বেতাগী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী শাখাওয়াত হোসেন বলেন, ঘটনা শুনেই আমরা ঘটনাস্থলে ছুটে এসেছি। ইউপি চেয়ারম্যান ইমাম হাসান শিপন জোমাদ্দারের উপর কারা হামলা চালিয়েছে তা এখন পর্যন্ত নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে আমার ধারণা নির্বাচন কেন্দ্রিক প্রতিপক্ষ এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকতে পারে।
তিনি আরও বলেন, ইতিমধ্যে আমরা সন্দেহভাজনদের ধরতে অভিযান শুরু করেছি।

 

Sharing is caring!