বিসিবি সভাপতি পাপনও যাচ্ছেন পাকিস্তানে

প্রকাশিত: ১১:৫১ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ১৯, ২০২০

পাকিস্তান সফরে শুধুমাত্র বাংলাদেশ ক্রিকেট দলই যাচ্ছে না, ক্রিকেটারদের উৎসাহ দেয়া এবং সরাসরি ম্যাচ দেখার জন্য পাকিস্তান যাচ্ছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনও। আজ বিকেলে বিসিবিতে এসে নিজেই এ বিষয়ে নিশ্চয়তা দিয়ে গেছেন বিসিবি সভাপতি। একই সঙ্গে জানিয়ে দিয়ে গেছেন, বাংলাদেশ দলের সঙ্গে কে কে ম্যানজার এবং অন্য কর্মকর্তা হিসেবে যাচ্ছেন।

তুমুল বিতর্ক আর আলোচনা-সমালোচনার পর অবশেষে পাকিস্তান সফরে যাচ্ছে বাংলাদেশ। তিন দফায় বাংলাদেশ পাকিস্তান গিয়ে খেলবে তিনটি টি-টোয়েন্টি, দুটি টেস্ট এবং একটি ওয়ানডে ম্যাচ। শুরুতেই তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি। ২৪ তারিখ লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে মুখোমুখি হচ্ছে বাংলাদেশ-পাকিস্তান।

টি-টোয়েন্টি সিরিজের জন্য এরই মধ্যে ১৫ সদস্যের বাংলাদেশ দল ঘোষণা করা হয়ে গেছে। সিরিজে অংশ নিতে ২২ তারিখ রাতে পাকিস্তানের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। মাঝে দুবাই কিংবা আবুধাবিতে যাত্রা বিরতি দিয়ে ২৩ তারিখ সকাল ১০টায় লাহোর গিয়ে পৌঁছাবে টাইগাররা।

বিসিবি সভাপতি আজ দুপুর ২টার দিকে মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামস্থ কার্যালয়ে আসেন। প্রায় ৪০ মিনিট বোর্ডে বৈঠক শেষে বেরিয়ে যাওয়ার মুহূর্তে মিডিয়ার মুখোমুখি হয়ে পাকিস্তান সফরের নানা বিষয় নিয়ে কথা বলেন। সেখানেই পাপন জানান যে, তিনি নিজেও পাকিস্তানের লাহোরে যাচ্ছেন।

তবে, পাপন পুরো টি-টোয়েন্টি সিরিজ পাকিস্তানে থাকবেন নাকি প্রথমটি মিস করবেন, সেটা নিয়ে একটু দ্বিধা-দ্বন্দ্ব আছে। কারণ, পাপন নিজে বলেছেন যে, তিনি ২৩ তারিখ গিয়ে দলের সঙ্গে যোগ দেবেন। কিন্তু বিসিবির একটি অফিস সূত্র জাগো নিউজকে জানিয়েছেন, বিসিবি সভাপতি প্রথম টি-টোয়েন্টি নয়, দ্বিতীয় এবং তৃতীয় টি-টোয়েন্টি দেখবেন।

বিসিবি থেকে বেরিয়ে যাওয়ার মুহূর্তে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে পাপন জানান, তিনি যাচ্ছেন এটা নিশ্চিত। তিনি বলেন, ‘আমার ইমার্জেন্সি কালকে (সোমবার) রাতে একটু বাইরে যেতে হচ্ছে। আবার আমি চলে আসব ২২ তারিখে। সুতরাং, আমি ওদের সাথে যেতে পারছি না। তো ওরা আবার ভাববে যে আমি আবার কোথাও চলে যাচ্ছি। আমি বলেছি যে, আমি ২৩ তারিখ ওখানে গিয়ে তোমাদের সাথে দেখা করব।’

দল কখন যাবে, সাপোর্ট স্টাফ কারা কারা থাকছে, সে বিষয়ে কথা বলেন পাপন। তিনি বলেন, ‘সাপোর্ট স্টাফ কারা যাচ্ছে বা যাচ্ছে না এটা মেক সিউর করা খুব গুরুত্বপূর্ণ। তো এটা নিয়ে বসব এখন (আজ, রোববার)। যাওয়া-আসার (খেলোয়াড়দের) ব্যাপারটাও দেখব এখন। কীভাবে যাচ্ছি, ভ্রমণের সেরা উপায়টা কি? ওরা ২২ তারিখ রাতে রওনা দিয়ে ২৩ তারিখ সকাল ১০ টায় গিয়ে পৌঁছাবে।’

বিসিবি সভাপতি যে যাচ্ছেন, সেটা তো তিনি নিজেই জানালেন। তার সফরসঙ্গী হিসেবে কারা থাকবেন পাকিস্তানে? এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে পাপন বলেন, ‘প্রেসিডেন্ট থাকবে, পরিচালকের আবার দরকার আছে নাকি? থাকবে ইনশাআল্লাহ। থাকবে সবাই। আমি জিজ্ঞেস করলাম নান্নু যাচ্ছে? বলে নান্নু যাচ্ছে। এরপর জিজ্ঞেস করলাম, আকরাম যাচ্ছে, পরে বলে যে, মনে হয় যাচ্ছে। তো আমি বললাম, যে মনে হয় না। এখনই কনফার্ম করো আমাকে। কে কে যাচ্ছে। আমরা চাচ্ছি যে আমরা সবসময় যেভাবে ট্যুরে যাই ওভাবেই যাবো।’

জানা গেছে, লজিস্টিক ম্যানেজার হিসেবে পাকিস্তান যাচ্ছেন সাব্বির খান। সঙ্গে থাকছেন আকরাম খান। তিনি ম্যানেজার নাকি শেপ দ্য মিশন- সেটা নিশ্চিত করেনি বিসিবি। এছাড়া সঙ্গে যাচ্ছেন বিসিবি প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নুও।

বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘ইন্ডিয়াতে যেমন ছিল। অপারেশনে তো সাব্বির থাকছেই। তারপরেও এসব আলাপ করতেই আসলে (আজ বিসিবিতে) এসেছি। আমি আসলে আলাপ শুরু করিনি। ওগুলোই দেখতে এসেছি কে কে যাচ্ছে, না যাচ্ছে। এটা জানি আমি যাচ্ছি।’

Sharing is caring!