বিধবা নারীর সাথে অনৈতিক সম্পর্ক : বাবার বিরুদ্ধে মেয়ের সংবাদ সম্মেলন

প্রকাশিত: ৮:১৫ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৪, ২০২০

নাসির উদ্দিন বিপ্লব, কুয়াকাটা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি ॥

বাবার অনৈতিক সম্পর্ক ধামাচাপা দিতে মাকে জড়িয়ে নিজের স্বামীর সাথে অবৈধ সম্পর্কের মনগড়া কাহিনী বর্ণনা করে হয়রানিমূলক মামলা দায়েরের বিরুদ্ধে মেয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছে। নিজেকে বিচার বুদ্ধিসম্পন্ন দাবি করে শুক্রবার সকালে কুয়াকাটা প্রেসক্লাবে মেয়ে ইয়াসমিন লিখিত বক্তব্যে বলেন, আমার প্রবাসী বাবা ইব্রাহীম নিজের পছন্দে আমাকে নাবালিকা অবস্থায় বিয়ে দিয়ে অপরাধ করেছে। উল্টো আমার মায়ের ঘারে এখন এই দোষ চাপাতে চাইছে। আমাকে নির্বোধ এবং এখনো নাবালিকা হিসেবে প্রমাণ করতে চাইলেও আমার জন্মের পর তার হাতে সৃষ্ট টিকার কার্ড অনুযায়ী আমার বর্তমান বয়স প্রায় ১৯ বছর। আমার বাবা প্রবাসে থাকাকালে পরিবারে দায়িত্বশীল কেউ না থাকায় আমার বাবার নির্দেশেই আমার স্বামী রবিউলকে ওই পরিবারের নানা কাজে সহায়তা করতে হয়।

তার ক্রয়কৃত জমির দলির রেজিস্ট্রিসহ নির্মানাধীন পাকা বাড়ির যাবতীয় খরচ আমার স্বামীর হাত দিয়েই হয়েছে। বিদেশ থেকে বাবার পাঠানো টাকার বাইরেও আমার স্বামীর নিজ দায়িত্বে বিভিন্ন দোকান থেকে পাঁচ লক্ষাধিক টাকার বাকী মালামাল ক্রয় করে তার নির্মানাধীন বিল্ডিং এর কাজে লাগানো হয়। ওই টাকার পাওনাদার আলীপুরের ব্যবসায়ী মেসার্স সাগরকন্যা এন্টারপ্রাইজ এবং হাওলাদার টাইল্স এর মালিক যথাক্রমে আলমগীর হোসেন ও মো: ইসমাইল হাওলাদারের সামনে হিসাব চূড়ান্ত করে গত ১৪ মার্চ ২০২০ পুনরায় তিনি বিদেশ গমন করেন।

এসময় বিদেশ থেকে পাওনা টাকা বাবার পাঠানোর প্রতিশ্রুতি থাকলেও তা আর পাঠায়নি। উল্টো তার টাকা আত্মসাতের অভিযোগ আনা হয়েছে আমার মা হাওয়া বেগম ও স্বামী রবিউলের বিরুদ্ধে। এছাড়া আমার গর্ভের সন্তান নষ্ট করার কথা উল্লেখ করে আমার বাবা আমাকে সান্ত¡না না দিয়ে উল্টো মানসিক যন্ত্রণা দিয়েছেন। গত ২৩ মার্চ পটুয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে আমার একটি পুত্র সন্তানের জন্ম হয়। এর এক সপ্তাহ পর নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে মারা যায়।

এ বিষয়ে মালয়েশিয়া প্রবাসী মো: ইব্রাহীমের স্ত্রী হাওয়া বেগম বলেন, আমার স্বামী বিদেশ থেকে প্রতিবেশী বিধবা হালিমার সাথে ভিডিও কলসহ বিভিন্ন উপায়ে যোগাযোগ রক্ষার পাশাপাশি বর্তমানেও ওই মহিলার ঘরেই রাত কাটায়। মূলত এ নিয়েই আমার সাথে দূরত্ব সৃষ্টি হলে উল্টো আমার সন্তানতুল্য জামাতাকে জড়িয়ে আমার বিরুদ্ধে মানহানিকর কথাবার্তা বলে আসছেন। মেয়ে ইয়াসমিনের সংবাদ সম্মেলনের বিষয়ে প্রবাসী ইব্রাহীমের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করে তাকে পাওয়া যায়নি।