বিএমপির নাগরিক তথ্য অভিযান কার্যক্রমের উদ্বোধন

প্রকাশিত: ১১:৪৪ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৯

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ‘‘নাগরিক তথ্য নিবন্ধন করি, সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ সমাজ গড়ি” এই সেøাগান নিয়ে নাগরিক তথ্য অভিযান-২০১৯ এর উদ্বোধন করা হয়েছে। গতকাল শনিবার বেলা সাড়ে ১১ টায় অশ্বিনী কুমার হলে কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো. শাহাবুদ্দিন খান বিপিএম (বার) পিপিএম। এ সময় তিনি বলেন, আমরা এখন সেই ব্রিটিশ ও পাকিস্তান ভাবধারার পুলিশ নই। সে সময় আমরা বিভিন্ন কারণেই অনেক কাজ করতে সক্ষম হইনি। পুলিশ এখন বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলার মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাস নিয়ে ঘুষ, দুর্নীতি মুক্ত পুলিশ প্রশাসন গড়ার লক্ষ্যে সর্বস্তরের জনপ্রতিনিধি, গণপ্রতিনিধি ও তৃণমূলদের সাথে নিয়ে সমাজের সকলস্তরে সেবা পৌঁছে দিতে চায়। তিনি আরো বলেন, আমরা বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে চাই। সোনার মানুষ হয়ে শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রেখে আপনাদের কাজ করতে হবে। পুলিশ কমিশনার বলেন, অপরাধ ও জঙ্গিবাদ নির্মূলে তথ্য সংগ্রহের লক্ষ্যে তথ্যবহুল মেট্রোপলিটন পুলিশ প্রশাসন গড়ার কাজ শুরু করা হয়েছে। যে সকল অপরাধীরা পরিচয় গোপন রেখে বাসা ভাড়া নিয়ে কিংবা মেসে থাকে তাদেরকে সহজে চিহ্নিতকরণে পুলিশের এ উদ্যোগ। পুলিশের সদস্যরা প্রতিটি বাড়ি বাড়ি যাবেন তথ্য সংগ্রহ ফরম নিয়ে এবং তারা ফরম পূরণ করে নিয়ে আসবেন। অপরাধ নিয়ন্ত্রণ এবং প্রতিরোধে এ তথ্য ভা-ার অনেক কাজে আসবে। প্রসংগত, মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ নির্মূলে নগরীর নাগরিকদের ১৭ ধরনের তথ্য সংগ্রহ করছে পুলিশ। সকল বাড়িওয়ালা, ভাড়াটিয়া কিংবা মেসের বাসিন্দা সকলে একটি তথ্য ফরমের মাধ্যমে পুলিশের ডাটাবেজে সংযুক্ত থাকবেন। সেখানে তাদের ছবি এবং প্রয়োজনীয় ১৭ ধরনের তথ্য থাকবে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার প্রলয় চিসিম, উপ-পুলিশ কমিশনার (উত্তর) মোক্তার হোসেন, আবু রায়হান সালেহ (সদর দপ্তর), খায়রুল আলম (ট্রাফিক)। এসময় আরো বক্তব্য রাখেন বিসিসি’র প্যানেল মেয়র আয়শা তৌহিদ লুনা ও কোতোয়ালি কমিউনিটি পুলিশিং এর কমান্ডার বিজয় কৃষ্ণ দে। এর আগে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ময়দানে ১০ দিনব্যাপী তথ্য সংগ্রহ অভিযান কার্যক্রম ফেস্টুন উড়িয়ে উদ্বোধন করা হয়। পরে পুলিশ কমিশনারের নেতৃত্বে বর্ণাঢ্য র‌্যালি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে অশ্বিনী কুমার হল চত্বরে শেষ হয়।

Sharing is caring!