বিএমপি’র করোনা জয়ী ৩৪ সদস্যকে ফুল দিয়ে বরণ

প্রকাশিত: ৭:১৯ অপরাহ্ণ, জুন ২৪, ২০২০

স্টাফ রিপোর্টার ॥ প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসকে জয় করা ৩৪ সদস্যকে বরণ করে নিয়েছে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ (বিএমপি)। গতকাল বুধবার দুপুরে নগরীর পুলিশ লাইন্স গ্রিল সেডে ফুল এবং উপসহার সামগ্রী দিয়ে তাদের গ্রহণ করে নেন বিএমপি কমিশনার মো. শাহাবুদ্দিন খান- বিপিএম (বার) সহ অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। সেই সাথে ওই ৩৪ পুলিশ সদস্যকে পুনরায় দেশের স্বার্থে করোনা যুদ্ধে দায়িত্ব পালনের অনুমতি প্রদান করা হয়েছে।

সুস্থ হয়ে পুনরায় কাজে যোগদান করা পুলিশ সদস্যদের মধ্যে ২ জন এসআই (নিরস্ত্র), ৪ জন এসআই (সশস্ত্র), একজন টিএসআই, ৬ জন নায়েক ও ১৬ জন কনস্টেবল রয়েছেন। এছাড়াও করোনা জয় করে ফেরা আরও ৪২ জন এখনো আইসোলেশনে রয়েছেন। পর্যায়ক্রমে তাদেরও বরণ করে নেয়া হবে।

এদিকে করোনাভাইরাস থেকে সম্পূর্ণ সুস্থ হওয়া পুলিশ সদস্যদের বরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি’র বক্তৃতায় বিএমপি কমিশনার মো. শাহাবুদ্দিন খান বলেন, ‘মূল্যবোধ সম্পন্ন মানবিক পুলিশ, জনগণের পুলিশ নিয়ে বঙ্গবন্ধু যে স্বপ্ন দেখেছিলেন এই মহা দুর্যোগে আমরা সেই পুলিশ হিসেবে নিজেদেরকে তুলে ধরেছি। দুর্যোগ চলে গেলে তা ধরে রাখতে হবে।

তিনি আরও বলেন, ‘করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে লকডাউন, জননিরাপত্তা ছাড়াও অসহায়দের খাদ্য সহায়তা, লকডাউন এলাকা পাহারা, কোয়ারেন্টিনে থাকা ব্যক্তিদের নজরদারি, রোগীকে হাসপাতালে আনা, মৃতদেহ গোসল, দাফন ও সৎকারে গিয়ে আমরা সংক্রমিত হয়েছি। তবে এ মহামারিতে পুলিশ ও সাধারণ মানুষের মধ্যে যে মানবিক ভাবমর্যাদা তথা আস্থা তৈরি হয়েছে তা থেকে পিছিয়ে যাওয়ার সময় নেই।

পুলিশ সদস্যদের উদ্দেশ্যে বিএমপি কমিশনার বলেন, ‘পুরানো কোন বদনাম যেন আর ঘাড়ে না আসে। জনগণের সাথে কোন প্রকার অসৌজন্যমূলক আচরণ করা যাবে না। পুলিশের প্রতি জনগণের আস্থাহীনতা শূন্যের কোঠায় আনতে হবে। আইজিপি মহোদয়ের নির্দেশনা বাস্তবায়নে সাধারণ মানুষের দ্বারে দ্বারে সেবা পৌঁছে দেওয়ার যে মানসিক চেহারা তৈরি হয়েছে সেই গ্রহণযোগ্য পুলিশিং ধরে মাঠে কাজ করার পাশাপাশি জনগণের পাশে থাকার আহ্বান জানান তিনি।

পরে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করা সম্মুখ যোদ্ধাদের রুহের মাগফেরাত ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান। একই সাথে আক্রান্ত পুলিশ সদস্যদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করে নগরবাসী তথা দেশবাসীর প্রতি দোয়া কামনা করেন নগর পুলিশের এই ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা।

এদিকে খোঁজ নিয়ে জানাগেছে, গত ৯ মে প্রথম বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের একজন সদস্যের করোনাভাইরাস পজেটিভ শনাক্ত হয়। তিনি বিএমপি’র উপ-পুলিশ কমিশনার (উত্তর জোন) এর কার্যালয়ে কর্মরত অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনারের গাড়ি চালক ছিলেন। এর পর থেকেই বিএমপিতে বাড়তে থাকে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা।

সবশেষ বুধবারের তথ্য অনুযায়ী বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের মোট ১৮৩ জন সদস্য করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন মোট ৭৬ জন। এর মধ্যে করোনা উপসর্গ নিয়ে মঙ্গলবার প্রথম একজন পুলিশ সদস্য’র মৃত্যু হয়েছে। তিনি রাজারবাগ কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। তাছাড়া সুস্থতা লাভ করাদের মধ্যে ৩৪ জন আইসোলেশন সম্পন্ন করে গতকাল বুধবার থেকে কাজে যোগদান করেছেন। এছাড়া আরও ৪২ জন যোগদানের অপেক্ষায় আছেন।

Sharing is caring!