বিএনপি এখন বিগত দিনের চেয়ে বেশি ঐক্যবদ্ধ : ৪২ তম জন্মবার্ষিকীতে নেতৃবৃন্দ

প্রকাশিত: ১১:১০ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৩১, ২০২০

শফিক মুন্সি ॥

প্রায় এক যুগের বেশি সময় ধরে রাষ্ট্রক্ষমতার বাইরে থাকা বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) আজ ৪২ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সফল রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের হাত ধরে ক্ষমতার রস্্র সৃষ্টি হওয়া দলটি দীর্ঘদিন ক্ষমতার বাইরে থেকেও এখনো বহুলভাবে আলোচিত। সেটা হোক রাজনীতির মাঠে কিংবা সাধারু মানুষের মুখরোচক আড্ডাতে। দেশের মানুষকে প্রকৃত উন্নতির স্বাদ দেয়া, জিয়াউর রহমানের উত্তরসূরী হিসেবে খ্যাত দলটির চেয়ারম্যান বেগম খালেদা জিয়া ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক জিয়াকে রাজনীতিতে ফিরিয়ে আনা এবং দেশে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার এসব এখন দলটির মূল উদ্দেশ্য। এমনটাই জানালেন দলটির বরিশাল অঞ্চলের নেতারা। আর এই উদ্দেশ্যগুলো বাস্তবায়নে অতীতের যেকোনো সময়ের চেয়ে বর্তমানে বেশি ঐক্যবদ্ধ তারা।

বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক (বরিশাল বিভাগ) বিলকিস জাহান শিরিন জানান, মুক্তিযুদ্ধের চেতনার যথাযথ বাস্তবায়ন, গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার ও দেশের তৎকালীন রাজনৈতিক অরাজকতার সমাপ্তি টানতে বীর মুক্তিযোদ্ধা এবং সফল রাষ্ট্রনায়ক জিয়াউর রহমান বিএনপির প্রতিষ্ঠা করেন। আর দলটির প্রতিষ্ঠাকালীন এসব উদ্দেশ্য বাস্তবায়নে বর্তমান নেতাকর্মীরা এখনো কাজ করে যাচ্ছেন বলে জানালেন দলটির যুগ্ম মহাসচিব ও বরিশাল মহানগর বিএনপির সভাপতি মজিবর রহমান সরোয়ার।

বরিশালের বিএনপির অন্যতম প্রধান এই নেতা বলেন, বিগত এক যুগেরও বেশি সময় ধরে দেশের মানুষ এক অগণতান্ত্রিক এবং অরাজক পরিস্থিতিতে বসবাস করছে। দেশের মানুষকে এমন অবস্থা থেকে পরিত্রাণ দিতে আমাদের নেতা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান বিএনপি প্রতিষ্ঠা করে যে পথ বাতলে দিয়েছিলেন সেই পথ ধরেই আমরা এগিয়ে যাচ্ছি। এভাবেই বর্তমানে প্রচলিত দুঃশাসন, বিচারহীনতা,কথা বলার অধিকারহীনতা,দুর্নীতি প্রভৃতি থেকে জনগণকে উদ্ধার করা হবে।

আর বর্তমান ক্ষমতা বিহীন কণ্টক পূর্ণ সময়ে দলটি আরো ঐক্যবদ্ধ হয়েছে বলে জানান বিএনপির সহসাংগঠনিক সম্পাদক ও বরিশাল উত্তর জেলা সাধারণ সম্পাদক আকন কুদ্দুসুর রহমান। তিনি বলেন, বিএনপি কখনোই ক্ষমতার জন্য রাজনীতি করে নি। সবসময় আমরা রাজনীতি করেছি মানুষের সেবা করার জন্য। বর্তমানে দেশের সাধারণ জনগণ সকলে দুর্বিষহ জীবনযাপন করছে। মানুষকে এই পরিস্থিতি থেকে মুক্ত করতে হবে এমন চেতনা বুকে লালন করে আমরা জেল-জুলুম সহ্য করে অতীতের তুলনায় অনেক বেশি ঐক্যবদ্ধ আছি।

তবে মানুষের অধিকার পুনরুদ্ধারে দেশে বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক জিয়ার নেতৃত্ব দরকার বলে উল্লেখ করেন বিএনপির বরিশাল দক্ষিণ জেলা সভাপতি এবায়দুল হক চাঁন। তিনি বলেন, সাবেক সফল রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের সময় দেশে কৃষি বিপ্লব ও অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি শুরু হয়েছিল। যার ধারাবাহিকতা রক্ষা করেছে বিএনপি সরকার। কিন্তু বর্তমানে বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক জিয়াকে ষড়যন্ত্র করে রাজনীতি থেকে দূরে রেখে গণ মানুষের বাঁচার অধিকার খর্ব করা হচ্ছে। তাদেরকে আবার রাজনীতির মাঠে ফিরিয়ে এনে এই অবস্থা থেকে উত্তরণ ঘটাতে হবে।

প্রসংগত, ১৯৭৮ সালের আজকের দিনে বিকাল ৫টায় রমনা রেস্তোরাঁয় আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তৎকালীন রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের আনুষ্ঠানিক ঘোষণাপত্র পাঠের মাধ্যমে বিএনপির যাত্রা শুরু হয়। সংবাদ সম্মেলনে তিনি ঘোষণাপত্র পাঠ ছাড়াও প্রায় দুই ঘণ্টা সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন। সংবাদ সম্মেলনে প্রথমে ১৮ জন সদস্যের নাম এবং ১৯ সেপ্টেম্বর ওই ১৮ জনসহ ৭৬ সদস্য বিশিষ্ট আহবায়ক কমিটি ঘোষণা করেন জিয়াউর রহমান।

দল প্রতিষ্ঠার মাত্র তিন বছরের মাথায় ১৯৮১ সালে ৩০ মে সামরিক অভ্যুত্থানে নিহত হন জিয়াউর রহমান। এ ঘটনার মধ্য দিয়ে বিএনপির রাজনীতিতে জিয়া পর্বের সমাপ্তি ঘটে। কিছু দিনের মধ্যেই দলের হাল ধরেন খালেদা জিয়া। ১৯৮৪ সালের ১০ মে বিএনপির চেয়ারপারসন নির্বাচিত হন তিনি।
প্রতিষ্ঠার পর ১৯৭৯, ১৯৯১, ২০০১ সালে অনুষ্ঠিত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী হয় বিএনপি। ২০০৭ সালের ১১ জানুয়ারির পর থেকে আজ অব্দি ক্ষমতার বাইরে রয়েছে দলটি। ২০১৪ থেকে ২০১৯ পর্যন্ত জাতীয় সংসদের বাইরে ছিল বিএনপি। এই মুহূর্তে দলটির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া সক্রিয় রাজনীতির বাইরে। আর ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান রয়েছেন নির্বাসনে।

Sharing is caring!