বাবুগঞ্জে ৪৮ বছরেও সংস্কার হয়নি সড়ক, ১০ গ্রামের মানুষের জনদুর্ভোগ চরমে


Deprecated: get_the_author_ID is deprecated since version 2.8.0! Use get_the_author_meta('ID') instead. in /home/ajkerbarta/public_html/wp-includes/functions.php on line 4861
প্রকাশিত: ৬:১০ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২০

আরিফ হোসেন, বাবুগঞ্জ প্রতিনিধি ::

কৃষি সমৃদ্ধ খ্যাত বাবুগঞ্জ উপজেলার মাধবপাশা ইউনিয়নের রহমতপুর ব্রিজ থেকে মোহনগঞ্জ বাজার হয়ে লাকুটিয়া বাজার পর্যন্ত ৩ কিলোমিটার ইটের সলিং রাস্তা দীর্ঘ ৪৮ বছরেও সংস্কার না করায় চরম দুর্ভোগে পড়েছেন এলাকাবাসী।

এই ৩ কিলোমিটার রাস্তায় গত কয়েকদিনের বৃষ্টিতে অস্বাভাবিক কাদা জমেছে। এতে ওই রাস্তা দিয়ে চলাচলকারী অন্তত ১০ গ্রামের মানুষ চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন।
এ সড়ক দিয়ে ছোট ছোট যান চলাচলও বন্ধ হয়ে গেছে। স্কুল-কলেজগামী শিক্ষার্থীরা পড়েছে চরম দুর্দশায়। রাস্তাটি সংস্কারের দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী।
সরেজমিন দেখা গেছে, উপজেলার মাধবপাশা ইউনিয়নের ৭, ৮ ও ৯ নন্বর ওয়ার্ডের প্রতাবপুর ও পূর্ব রহমতপুর গ্রাম দুটির মাঝ দিয়ে অন্তত ১০ গ্রামের মানুষ প্রতিদিন বরিশাল শহরে, উপজেলা পরিষদ, রহমতপুর বাজার, মোহনগঞ্জ বাজার ও বিমানবন্দরে যাতায়াত করে থাকে।

ইট উঠে পুরো কাদা-মাটির রাস্তায় পরিণত হয়েছে। চলতি বর্ষা মৌসুমে পুরো রাস্তাটি কাদা-পানিতে একাকার হয়ে বেহাল দশার সৃষ্টি হয়েছে। ফলে প্রতিদিনই দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছেন এ রাস্তা দিয়ে যাতায়াতকারীরা।

স্থানীয়রা জানান, ১৯৭২ সালে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতর (এলজিইডি) এই রাস্তাটি নির্মাণ করে। নির্মাণের কয়েক বছর পর থেকেই রাস্তাটি চলাচল অনুপযোগী হয়ে পড়লেও এখন পর্যন্ত সংস্কার করা হয়নি। অথচ রাস্তাটি ব্যবহার করে স্থানীয় বাসিন্দারা যাতায়াতের পাশাপাশি প্রতিদিন কৃষি পণ্য ও মৎস্য সম্পদ জেলার বিভিন্নস্থানে পরিবহনযোগে সরবরাহ করে আসছেন।

স্থানীয় বাসিন্দা বাবুগঞ্জ উপজেলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি শাহজাহান খান জানান, দীর্ঘদিনের চলাচল অযোগ্য রাস্তাটি সংস্কারের জন্য স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের (এলজিইডি) বরিশাল বিভাগীয় প্রধান প্রকৌশলীর নিকট লিখিতভাবে আবেদন করা হয়েছে অনেক দিন আগে। এখন পর্যন্ত রাস্তাটি সংস্কার করা হয়নি।

দীর্ঘ প্রায় ৪৮ বছর আগে নির্মিত ওই রাস্তাটি সংস্কারের জন্য বাবুগঞ্জ উপজেলা এলজিইডি কার্যালয়ে একাধিকবার আবেদন করা হলেও কোন সুফল মেলেনি। গত ৪৮ বছরে অনেক সংসদ সদস্য পরিবর্তন হলেও পরিবর্তন হয়নি রাস্তাটির বেহাল দশা।

স্থানীয়রা জানান, দীর্ঘদিন ধরে রাস্তাটি সংস্কার না হওয়ায় বিভিন্ন স্থানে মাটি ধসে গিয়ে ছোট-বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। সামান্য বৃষ্টি হলে ভ্যান, অটোরিকশা চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। ফলে রোগী পরিবহনেও চরম ভোগান্তিতে পড়তে হয়।

বাবুগঞ্জ উপজেলা স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের প্রকৌশলী মনোয়ার হোসেন জানান, রাস্তাটি দীর্ঘ বছর ধরে চলাচলের অযোগ্য বলে শুনেছি। তবে দ্রুত সংস্কারের জন্য চেষ্টা চলছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

স্থানীয় মাধবপাশা ইউপি চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদিন বলেন, এটা বাবুগঞ্জ উপজেলার রাস্তা হলেও এটি তত্ত্বাবধানে রয়েছে জেলা পরিষদ। বরিশাল জেলা পরিষদ থেকে একাধিকবার রাস্তাটি পরিমাপ করে নিয়েছে। আজ পর্যšন্ততারা রাস্তাটি সংস্কারে কোনো পদক্ষেপ নেয়নি।