বাবুগঞ্জে স্কুলছাত্র নিখোঁজের ঘটনায় রহস্য

প্রকাশিত: ৯:০৯ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৯

বাবুগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ বাবুগঞ্জ উপজেলার দেহেরগতি ইউনিয়নের বাহেরচর কে.কে মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণির ছাত্র মো. রুহুল আমিন জয় (১৫) ৬দিন যাবত নিখোঁজ রয়েছে বলে জানা গেছে। জয় ুদ্রকাঠি গ্রামের মো. জলিল ফকিরের পুত্র। এ ঘটনায় নিখোঁজ মর্মে জয়ের চাচা ১৪ সেপ্টেম্বর বাবুগঞ্জ থানায় একটি জিডি করেছেন (নং-৬৮৬)। সে মোতাবেক থানা পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করে বিভিন্ন মাধ্যমে খোঁজ খবর নিচ্ছে। হঠাৎ ১৬ সেপ্টেম্বর সকালে জয়ের মা মোসা. লাকি আক্তারের মোবাইল ফোনে কয়েক দফায় জয়ের মুক্তিপণ দাবি করে অপরিচিত নাম্বার থেকে ফোন আসে। লাকি আক্তার জানান, জয় গত ১১ সেপ্টেম্বর খালা বাড়ির নামকরে চলে যায় এবং তারপর থেকে তাকে আর খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। অনুপায় হয়ে থানায় জিডি করা হয়েছে। তিনি বলেন, নিখোঁজের ৬ দিন পর তার মুঠোফোনে ১৫ হাজার টাকা মুক্তিপণ দাবি করে কয়েক দফায় ফোন আসে। তবে কোথায় কখন সে সবের কোনো জবাব ফোনদাতা দেয়নি এমনকি জয়ের সাথে কথা বলতে চাইলেও তা দেয়া হয়নি। এখন মুক্তিপণের বিষয়টি নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে আসলে জয় নিখোঁজ নাকি অপহরণের শিকার হয়েছে? ইতিপূর্বে জয় আরো একবার এমন ঘটনা ঘটিয়েছে বলে তার মা লাকি আক্তার জানিয়েছেন। এ ঘটনায় র‌্যাব-৮ এর কার্যালয়ে লিখিত অভিযোগ করেছে ভুক্তভোগী পরিবার। বাবুগঞ্জ থানার ওসি মো. মিজানুর রহমান বলেন, নিখোঁজের ঘটনায় জিডি করা হয়েছে। নিখোঁজ স্কুল ছাত্র উদ্ধারে পুলিশ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। তবে অপহরণের প্রশ্নে তিনি বলেন, ৬ দিন পর মাত্র ১৫ হাজর টাকা মুক্তিপণ দাবির বিষয়টি রহস্যজনক এবং নাটক বলে মনে হচ্ছে। নাটক কিংবা রহস্য যেটাই হোক আমরা জয়কে উদ্ধারে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।